আইপিওতে ব্রোকারেজ হাউসে সাড়া কম

ipoনিজস্ব প্রতিবেদক :

ব্রোকারেজ হাউসের মাধ্যমে সহজ পদ্ধতিতে আইপিও আবেদন প্রক্রিয়া চালু হয়েছে। তবে এ পদ্ধতিতে প্রথম আইপিও হামিদ ফ্যাব্রিকসের ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীরা তেমন সাড়া দেখাননি। কোম্পানিটির আইপিও শেয়ার ক্রয়ে বিনিয়োগকারীরা ব্রোকারেজ হাউসের মাধ্যমে মাত্র ১৩৭ কোটি টাকার চাঁদা জমা দিয়েছেন, যা আদায়কৃত অর্থের ১৫ শতাংশেরও কম।

তবে আইপিও আবেদনের নতুন এ পদ্ধতি সহজ হওয়ায় ধীরে ধীরে এর পরিমাণ আরো বাড়বে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ব্রোকার হাউসের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

হামিদ ফ্যাব্রিকস সূত্রে জানা গেছে, মোট ৯২৯ কোটি টাকার শেয়ার ক্রয়ের আবেদনের বিপরীতে ডিএসইর ব্রোকারেজ হাউসগুলোর মাধ্যমে ১০৭ কোটি টাকা এবং সিএসইর ব্রোকারেজ হাউসগুলোর মাধ্যমে ৩০ কোটি টাকার আইপিও আবেদন পাওয়া গেছে। এছাড়া মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ৬ কোটি টাকার আইপিও আবেদন পাওয়া গেছে। পুরনো ব্যাংকিং প্রক্রিয়ায় ৭৩৬ কোটি টাকার আইপিও শেয়ার ক্রয়ের আবেদন পাওয়া গেছে।

দীর্ঘসময় লাইনে দাঁড়িয়ে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) আবেদন এবং রিফান্ড-সংক্রান্ত জটিলতা নিরসনে এই প্রক্রিয়া চালু করা হলেও প্রচারের অভাবে সাড়া কম। মার্কেন্টাইল ব্যাংক সিকিউরিটিজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মানজুম আলী বলেন, মূলত প্রচারের অভাবে ব্রোকার হাউসের মাধ্যমে আইপিও আবেদনে সাড়া মেলেনি। যদিও প্রচারণা চালানোর দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট ব্রোকার হাউসেরই। তবে এটি ভালো উদ্যোগ। আইপিও, শেয়ারহোল্ডার ও ব্রোকারেজ হাউস সবার জন্যই এটি ভালো। প্রথম আইপিওতে পর্যাপ্ত সাড়া না পেলেও ধীরে ধীরে তা বাড়বে।

একই অভিমত ব্যক্ত করে ঢাকা ব্যাংক ব্রোকারেজ হাউসের সিইও মোহাম্মদ আলী জানান, এটি খুবই ভালো উদ্যোগ। তবে এর জন্য প্রয়োজনীয় প্রচার-প্রচারণা প্রয়োজন। বড় ব্রোকার হাউসগুলো প্রচারণা চালালেও অন্যরা তেমনভাবে প্রচার করেনি। আইপিও শেয়ার ক্রেতার সঙ্গে ব্রোকার হাউসের যোগাযোগ কম থাকায় প্রথমবার এমনটি হয়েছে।

শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) প্রথমবার পরীক্ষামূলক (পাইলট) প্রকল্পের অধীনে ব্রোকারেজ হাউসের মাধ্যমে আবেদন ও চাঁদা জমা দেয়ার সুযোগ করা হয়। নির্দিষ্ট কিছু ব্যাংক শাখার মাধ্যমে আইপিও আবেদন ও চাঁদা জমা দিতে গিয়ে বিনিয়োগকারীরা ব্যাপক সময় নষ্ট ও দুর্ভোগের স্বীকার হন।

বিনিয়োগকারীদের দুর্ভোগ লাঘবে ও প্রক্রিয়াটি সহজ করার স্বার্থে ব্রোকারেজ হাউসের মাধ্যমে আবেদন এবং চাঁদা সংগ্রহের সিদ্ধান্ত নেয় বিএসইসি।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/সি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *