বাজেটে প্রণোদনার পরও দরপতন অব্যাহত

indexনিজস্ব প্রতিবেদক :

বাজেটে করপোরেট কর কমানোসহ বেশ কিছু প্রণোদনা থাকলেও দেশের শেয়ারবাজারের লেনদেনে এর প্রতিফলন লক্ষ করা যাচ্ছে না। উল্টো বাজেট ঘোষণার পর গত সপ্তাহজুড়ে দেশের দুই শেয়ারবাজারে দরপতন হয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক ও ব্যক্তি শ্রেণীর কিছু বিনিয়োগকারীর বিও হিসাব থেকে শেয়ার বিক্রির চাপকেই দরপতনের প্রধান কারণ বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র।

এদিকে বাজেট-উত্তর সংবাদ সম্মেলনে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) প্রস্তাবিত বাজেটকে শেয়ারবাজারের জন্য ইতিবাচক বলে উল্লেখ করেছে। তবে এ কারণে শেয়ারবাজার ঝুঁকিহীন হয়ে পড়েনি বলে মন্তব্য করেছেন স্টক এক্সচেঞ্জটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মারুফ উল মতিন। তিনি বলেন, ঝুঁকির বিষয় মাথায় নিয়েই এখানে বিনিয়োগ করতে হয়।

শেয়ারবাজারের জন্য বেশ ভালো কিছু প্রণোদনা থাকা সত্ত্বেও গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের এমন আচরণের কোনো কারণ ব্যাখ্যা করতে পারেননি শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্টরা।

যদিও বাজেট ঘোষণার পর প্রথম কার্য দিবস রবিবার শেয়ারবাজারের লেনদেন শুরু হয়েছিল ইতিবাচক ধারায়। কিন্তু লেনদেনের ওই ধারা শেষ পর্যন্ত স্থায়ী হয়নি।

গত সপ্তাহে তালিকাভুক্ত মোট ৩২৪ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর পতন হয়েছে ১৯৬ টি কোম্পানির শেয়ারের। আর বেড়েছে ১১৩ টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১২ টির। এ সপ্তাহে ৩ টি কোম্পানির কোনো লেনদেন হয়নি।

এই ৫ কার্যদিবসে ডিএসই ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক ৭৬ পয়েন্ট কমে ৪৫১৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে। গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২,৬৭৪ কোটি ৬৩ লাখ ৪৫ হাজার টাকার। আর এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৩,০১৫ কোটি ২ লাখ ২৫ হাজার টাকার শেয়ার।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএজে/এমআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *