স্বস্তিতে রাজধানী ছেড়েছে বিনিয়োগকারীরা

dseনিজস্ব প্রতিনিধি :
এবারের ঈদুল আযহা ও পুজার ছুটিতে কিছুটা হলেও স্বস্তি নিয়ে শিকড়ের টানে রাজধানী ছেড়েছে বিনিয়োগকারীরা। চলতি সপ্তাহে শেয়ারবাজারে লেনদেন উর্ধ্বমুখী প্রবণতা বিরাজ করায় বিনিয়োকারীরা আনন্দের চাদর জড়িয়ে ঈদ করতে গ্রামে ছুটতে ব্যস্ত রয়েছেন। এভাবেই সাংবাদিকদের কাছে অভিমত ব্যক্ত করেন শেষদিন স্বপরিবারের গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার জন্য পরিবহেনর অপেক্ষায় থাকা এক বিনিয়োগকারীরা।

দেশের উভয় শেয়ারবাজারে ঈদের আগে মাসব্যাপি লেনদেন ও সূচক বেড়েছে। সূচক ও গড় লেনদেন বাড়ায় স্বস্তিতে রয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। এর ফলে বৃহস্পতিবার শেয়ারবাজারে লেনদেন শেষে শিকড়মুখী বিনিয়োগকারী সহ বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষের ভিড় জমে গাবতলী, মহাখালী, সায়েদাবাদ, গুলিস্থান বাসস্ট্যান্ডেগুলোতে। অন্যদিকে কমলাপুরে রেলস্টেশনে মানুষের ভির ছিল লক্ষ্য করার মত। দিকভ্রান্ত বহু মানুষ ছোটাছুটি করে বাসের কাউন্টার থেকে কাউন্টারে। মুহূর্তেই ভরে যাচ্ছে উত্তর, দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের রুটে চলাচল করা বাসগুলো। এ যেন চলছে ঘরেফেরা মানুষের প্রতিযোগিতা। তবে আজ ঈদের আগেরদিন বলেই এ ভিড় এতটা নয়।

ঢাকার মতিঝিল এলাকায় কয়েক সিকিউরিটিজ হাউজের ঊর্ধ্বন কর্মকর্তারা জানান, এবারে ঈদে অনেক কর্মচারীদের বোনাস দেয়া হয়েছে। মুখ বুজে কাজ করে বেতনের আশায়। আর সেই বেতন সাথে বোনাস তাদের খুশির মাত্রাটা বাড়িয়ে দেয়।
কথাপকথনের এক পর্যায়ে বিনিয়োগকারী আবদুর রশিদ প্রামানিক বলেন, ঈদ মানেই আনন্দ ঈদ মানে খুশি। কিন্তু বিগত মন্দা বাজারের কারণে কয়েকটা ঈদ কেটেছে কষ্টের যন্ত্রনায়।

তিনি আরো বলেন, এবারের ঈদ আমাদের কাছে ব্যতিক্রম। পরিবারের সকলের জন্য নতুন নতুন জামা কাপড় নিয়ে যাচ্ছি গ্রামে। তাই আগামী বছরগুলোতে এবাবে ভালোভাবে ঈদ করার আশা প্রকাশ করে তিনি।

এদিকে ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, দেশের উভয় শেয়ারবাজারে মাসব্যাপি লেনদেন ও সূচক বেড়েছে। সূচক ও গড় লেনদেন বাড়ায় স্বস্তিতে রয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। ডিএসই ও সিএসই গড় লেনদেন এবং সূচক বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। গেল সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে গড় লেনদেন না বাড়লেও সূচক বেড়েছে। তবে চট্টগ্রাম স্টক সিএসই লেনদেনসহ সূচক বেড়েছে। এ সপ্তাহজুড়ে ডিএসই সূচক বেড়েছে ২১১ পয়েন্ট। এ সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছে ৯৫৯ কোটি টাকা। আগের সপ্তাহের গড় লেনদেন হয়েছে ১১০৩ কোটি টাকা। এর আগের সপ্তাহে গড় লেদেন হয়েছে ৯১৯ কোটি টাকা। এরও আগের সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছে ৫৭৩ কোটি টাকা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এআর/সি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *