পরিকল্পনায় চাঙ্গা ইউরোপের শেয়ারবাজার

euস্টকমার্কেট ডেস্ক :

ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের (ইসিবি) নেওয়া অর্থনীতি পুনরোদ্ধার পরিকল্পনায় আবারো সুচক বেড়েছে বাজারে । সূত্র- রয়টার্স

অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার লখ্যে বৃস্পতিবার প্রায় ১ ট্রিলিয়ন ইয়রো সমমূল্যের সরকারি-বন্ড ক্রয়ের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষনা করে ইসিবি্। আগামী ২০১৬ সালের মধ্যে পর্যায়ক্রমে এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হবে।এমন ঘোষনার প্রভাবে গতকাল অনেকটা বেড়েছে শেয়ার সুচক ।

গতকাল লন্ডন FTSE 100 Index ৬৮.৫৯ পয়েন্ট বেড়ে দাড়িয়েছে ৬,৭৯৬.৬৩ পয়েন্টে। CAC 40 Index ৬৭।৯৮ পয়েন্ট বেড়ে ৪,৫৫২.৮০ পয়েন্টে অবস্থান করছে ।এছাড়া TR EUROPE ইন্ডেক্স ০.০২ পয়েন্ট বেড়ে ১৫৮.৭৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

এদিকে ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের (ইসিবি) পলিসি মেকার ‘Ewald Nowotny’ এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন “অর্থনীতি পনরোদ্ধারে কেন্দ্রীর ব্যংকের নেওয়া উদ্যোগ প্রসংনীয়। কিছুটা দেরিতে হলেও এমন সিদ্ধান্ত গোটা ইউরোপের অর্থনীতিতে যেমন ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে তেমনি শেয়ার বাজারকেও চাঙ্গা করে তুলবে ।ফলে সাধারন বিনিয়োগকারিরা কিছুটা সুবিধা পাবেন”।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/তরি/এএআর

সপ্তাহের ব্যবধানে কমেছে লেনদেন ও সূচক

dseনিজস্ব প্রতিবেদক :

গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গড় লেনদেন ও সূচক দুটোই কমেছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, সমাপ্ত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ২৮৮ কোটি ৭৫ লাখ টাকার শেয়ার। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৮৫২ কোটি ১৬ লাখ টাকার শেয়ার। এ হিসাবে গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন ৫৬৩ কোটি ৪০ লাখ টাকা বা ৩০ দশমিক ৪২ শতাংশ কমেছে।

এর মধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ; ‘বি’ ক্যাটাগরির ৩ দশমিক ৬৪ শতাংশ; ‘এন’ ক্যাটাগরির ১৩ দশমিক ৬৪ শতাংশ এবং ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ৪ দশমিক ৯৬ শতাংশ।

ডিএসইর প্রধান সূচক সপ্তাহের ব্যবধানে ৩ দশমিক ১৯ শতাংশ বা ১৫৮ পয়েন্ট কমেছে। আর ডিএসই ৩০ সূচক কমেছে ৩ দশমিক ২৯ শতাংশ বা ৬০ পয়েন্ট। আর শরীয়াহ সূচক কমেছে ৩ দশমিক ২৪ শতাংশ বা ৩৮ পয়েন্ট।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩১৯টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৩২টির, কমেছে ২৭১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১২টির। আর ৪টি কোম্পানির কোনো লেনদেন হয়নি।

এদিকে গত সপ্তাহে সিএসইর প্রধান সূচক কমেছে ৩ শতাংশ বা ৪৭১ পয়েন্ট।

আলোচিত সপ্তাহে সিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১২৯ কোটি ১৫ লাখ টাকার শেয়ার। আর এর আগের সপ্তাহে যার পরিমাণ ছিল ১৩৬ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার। এ হিসাবে গত সপ্তাহে সিএসইতে লেনদেন ৭ কোটি ৬৯ লাখ টাকা বা ৫ দশমিক ৬১ শতাংশ কমেছে।

গত সপ্তাহে সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৬৯টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৩১টির, কমেছে ২২৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১০টির।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এএআর

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা পুনর্বিবেচনার আহ্বান

bbনিজস্ব প্রতিবেদক :

শেয়ারবাজারের সাম্প্রতিক নেতিবাচক পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপোজার (শেয়ারবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগ) সংক্রান্ত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছে ডিএসই।

ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. স্বপন কুমার বালা স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি চিঠি সম্প্রতি নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) বরাবর পাঠানো হয়েছে। একইসঙ্গে বিষয়টি চিঠির মাধ্যমে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে অবহিত করেছে ডিএসই।

ডিএসইর চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, সাম্প্রতিক বাজার পরিস্থিতি সম্পর্কে ডিএসই অবগত। পরিস্থিতি মোকাবেলার উপায় খুঁজতে গত বছরের ডিসেম্বরে টপ স্টেকহোল্ডারদের নিয়ে বৈঠক করা হয়। বৈঠকে সাম্প্রতিক সময়ের বাজার পরিস্থিতির অবনতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। এতে বিদ্যমান পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে কতিপয় গুরুত্বপূর্ণ মতামত এসেছে সংশ্লিষ্টদের পক্ষ থেকে।

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে বাংলাদেশ ব্যাংক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিওএস সার্কুলার নং-০৪, তারিখ ২৪ নভেম্বর ২০১১-তে উল্লিখিত শেয়ারবাজারে ব্যাংকের এক্সপোজার সংক্রান্ত কতিপয় শর্ত উঠিয়ে দেওয়া হলে তা বাজার পরিস্থিতির উন্নয়নে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

ডিএসইর পক্ষ থেকে যে সব শর্ত উঠিয়ে দেওয়ার কথা বলা হয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে— সকল অতালিকাভুক্ত শেয়ার, যা বর্তমানে ব্যাংকের এক্সপোজার হিসেবে গণ্য হয়।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/এএআর

প্রথমবারের মতো ২৯ হাজারে ভারতের শেয়ারবাজার

indiaস্টকমার্কেট ডেস্ক :

বৃহস্পতিবারই প্রথম ২৯হাজারের চূড়া অতিক্রম করল ভারতের সেনসেক্স সূচক৷ বিদেশি প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগের চাপে গত পাঁচদিন ধরেই দেশের শেয়ারবাজারের সূচকের গতি অবহ্যত রয়েছে।

গত পাঁচটি লেনদেনের দিনেই প্রায় ৬০০০ কোটি টাকার শেয়ার কিনেছে বিদেশি সংস্থাগুলি যদিও দেশের প্রতিষ্ঠানগুলিকে মূলত শেয়ার বেচতেই দেখা গিয়েছে৷ ২৮ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ হবে বলে ঘোষণা হয়েছে৷ আর শেয়ারবাজারের এই উথ্থান আসলে বাজেটকে গিয়ে প্রত্যাশার পারদ চড়ারই এটা বহি: প্রকাশ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা ৷

এদিন সেনসেক্স এক সময় উঠেছিল ২৯,০৬০.০২ পয়েন্টে পাশাপাশি নিফটিও এদিন রেকর্ড উচ্চতা ৮৭৭৪.১৫ পয়েন্টে পৌঁছে ছিল৷ তবে দিনের শেষে গতদিনের তুলনায়১১৭.১৬ পয়েন্ট উঠে বিএসই সূচক অবস্থান করছে ২৯০০৬.০২ পয়েন্টে৷ অন্যদিকে এনএসই সূচক ৩১.১৯ পয়েন্ট উঠে দাড়িয়ে রয়েছে ৮৭৬১.৪০ পয়েন্টে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/তরি/এএআর