তেলের দর কমার প্রভাব মার্কিন শেয়ারবাজারে

usaস্টকমার্কেট ডেস্ক :

সপ্তাহের শেষ দিনে আবারো ব্যাপক হারে সূচক পতন ঘটেছে আমেরিকার শেয়ারবাজারে। তেলের দর পতনে বাজার নিয়ে আশংকায় আছেন সাধারণ বিনিয়োগকারিরা।

গত শুক্রবার এদিন মূলত কমেছে বেসিক-ম্যাটেরিয়াল এবং সেবা খাতের শেয়ারের দাম। দিনশেষে মার্কিন শেয়ার বাজারের সবগূলো সূচকই ছিল নিম্নমূখী ।এছাড়া মোট লেনদেনের পরিমান কমেছে।

শুক্রবার দিনশেষে Dow Jones industrial average .DJI ইন্ডেক্স ৬২.৮৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৭,৭৫১.১৫ পয়েন্ট, TR-US INDEX 0.৩৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৮৫.৭৫ পয়েন্টে। এছাড়া S&P 500 ইন্ডেক্স ৬.৭১ পয়েন্ট কমে ২,০৫৬.৪৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের (ইসিবি)নতুন অর্থনৈতিক পুনরোদ্ধার সূচক পতন পরিকল্পনা ঘোষনার ফলে মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি গুলোর শেয়ারের উপর বিরুপ প্রভাব পড়ায় হটাত করে সূচক পতন ঘটেছে বলে দাবি করছেন বিশ্লেষকরা।

ইকুইটি ট্রেডিংয়ের মাইকেল জেমস বলেন, আমারা মনে করি তেলের মুল্যের দর পতন বিনিয়োগকারিদের মাঝে ছোট ছোট সংশয় জাগাচ্ছে যা সমষ্টিগতভাবে শেয়ার বাজারে বড় ধরনের পতনের কারন হয়ে দাঁড়াচ্ছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/তরি/এএআর

সাপ্তাহিক লেনদেনের ৩.৪৩% লাফার্জ সুরমা

lafarzস্টকমার্কেট ডেস্ক :
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহে সাপ্তাহিক লেনদেনের ৩ দশমিক ৪৩ শতাংশ ছিল লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেডের। সপ্তাহজুড়ে এর মোট ৪৪ কোটি ২৪ লাখ ২ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। ফলে কোম্পানিটি উঠে আসে লেনদেনের সাপ্তাহিক তালিকার তৃতীয় স্থানে। এদিকে গত সপ্তাহে এর দর কমেছে ৪ দশমিক ১৮ শতাংশ।

২০০৩ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট এর আগে কোনো হিসাব বছরের জন্যই শেয়ারহোল্ডারদের লভ্যাংশ দেয়নি। ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য কোম্পানিটি অন্তর্বর্তীকালীন ৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা দিয়েছে।

ডিএসইতে বৃহস্পতিবার এ শেয়ারের দর কমে দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ বা ১০ পয়সা। সর্বশেষ লেনদেন হয় ১২৬ টাকায়। সমাপনী দরও একই ছিল।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/এআর

ইউপিজিডির প্রবাসী আবেদন ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত

upgdস্টকমার্কেট ডেস্ক :

ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (ইউপিজিডিসিএল) আইপিও আবেদন গ্রহণ ২২ জানুয়ারি শেষ হয়েছে। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীরা এই আবেদন জমা দিতে পারবেন আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র থেকে জানা যায়, নির্ধারিত দিনের মধ্যে সকাল ১০ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত রাজধানীর মতিঝিলে এজিবি কোলনী কমিউনিটি সেন্টারে এ আবেদন জমা দিতে হবে।

এই প্রবাসী আবেদন কোম্পানির প্রধান কার্যালয়ে জমা নেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন কোম্পানিটি। তবে ডাক ও কুরিয়ারে মাধ্যমেও প্রধান কার্যালয় বরাবর এ সব আবেদন পাঠাতে পারবেন আগ্রহী প্রবাসীরা।

এর আগে ১২টি ব্যাংক ও অনুমোদিত ২৭৫টি হাউজে আইপিওর অর্থ জমা নিয়েছে সাধারণ ও ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের আবেদন।

এসব ব্যাংকের ঢাকা ও ঢাকার বাইরের নির্ধারিত কিছু শাখায় আইপিওর টাকা জমা দেয় বিনিয়োগকারীরা। এছাড়ার ৩৮টি মার্চেন্ট ব্যাংক কোম্পানির আইপিও জমা নিয়েছে।

সাধারণ ও ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের পক্ষ থেকে ভালো আবেদন জমা পড়েছে। আবেদন অনেক বেশি হওয়ায় লটারির মাধ্যমে শেয়ার বরাদ্দ করবে ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে গণমাধ্যমের মাধ্যমে লটারির ড্র র স্থান, তারিখ ও সময় বিনিয়োগকারীদের জানানো হবে বলে বলে জানিয়েছে কোম্পানিটি।

ইউপিজিডিসিএল বুক বিডিং পদ্ধতির আওতায় শেয়ারবাজারে ৩ কোটি ৩০ লাখ সাধারণ শেয়ার ছেড়ে ২৩৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা উত্তোলন করবে। এ জন্য ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের সঙ্গে ৬২ টাকা প্রিমিয়ামসহ প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৭২ টাকা। কোম্পানির ১০০টি শেয়ারে মার্কেট লট নির্ধারণ করা হয়েছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এইচ/এএআর/এলকে

সাভার রিফ্র্যাক্টরিজের এজিএম আজ

agmস্টকমার্কেট ডেস্ক :
শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সাভার রিফ্র্যাক্টরিজের বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আজ শনিবার অনুষ্ঠিত হবে। রাজধানীর হোটেল সুন্দরবনে এর আয়োজন করা হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

২০১৪ সালের জন্য কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের কোনো লভ্যাংশ দিতে পারেনি। সমাপ্ত হিসাব বছরে এর শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১ টাকা ৮ পয়সা ও শেয়ারপ্রতি নেট সম্পদমূল্য (এনএভি) ৯ টাকা ৪৮ পয়সা।

সর্বশেষ প্রকাশিত প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, সাভার রিফ্র্যাক্টরিজের নেট লোকসান হয়েছে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা ও শেয়ারপ্রতি লোকসান ১১ পয়সা। এ সময় কোম্পানির কোনো টার্নওভার ছিল না।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/এআর

ডিএসইতে কমেছে পিই রেশিও

dse1স্টকমার্কেট ডেস্ক :
সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সার্বিক মূল্য আয় অনুপাত (পিই রেশিও) কমেছে ৩ দশমিক ১৬ শতাংশ বা দশমিক ৫৭ পয়েন্টে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আলোচিত সপ্তাহে ডিএসইতে পিই রেশিও অবস্থান করছে ১৭ দশমিক ৫৩ পয়েন্ট। আগের সপ্তাহে এই পিই রেশিও ছিল ১৮ দশমিক ১০ পয়েন্ট।

বিশ্লেষকদের মতে, গত সপ্তাহে টানা দরপতনে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে। এতে পিই রেশিও কমে গেছে। তবে পিই রেশিও ১৫ ঘরে থাকলে বিনিয়োগ নিরাপদ বলে মনে করেন তারা।

সপ্তাহ শেষে খাতভিত্তিক ট্রেইলিং পিই রেশিও বিশ্লেষণে দেখা যায়, ব্যাংক খাতের পিই রেশিও অবস্থান করছে ৯ দশমিক ৪০ পয়েন্টে, সিমেন্ট খাতের ৩৫ দশমিক ১০ পয়েন্ট, সিরামিক খাতের ৩১ দশমিক ১০ পয়েন্টে, প্রকৌশল খাতে ২১ দশমিক ৩ পয়েন্ট, খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক খাতের ৩৫ দশমিক ২ পয়েন্ট, জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে ১৩ দশমিক ৩ পয়েন্ট, তথ্য ও প্রযুক্তি খাতের ২৪ দশমিক ৪ পয়েন্টে, পাট খাতের ১৮৬ দশমিক ২ পয়েন্ট, বিবিধ খাতের ৩৬ দশমিক ৮ পয়েন্ট, মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে ৭ দশমিক ৮০ পয়ন্টে, এনবিএফআই খাতের ১৯ দশমিক ৬ পয়েন্টে, কাগজ খাতের ৮ দশমিক ১ পয়েন্ট, ওষুধ ও রসায়ন খাতের ২৬ দশমিক ৪০ পয়েন্ট, সেবা ও আবাসন খাতের ৩৬ দশমিক ২ পয়েন্ট, চামড়া খাতের ২০ দশমিক ৩ পয়েন্ট, টেলিযোগাযোগ খাতে ৩২ দশমিক ২ পয়েন্ট, বস্ত্র খাতের ১২ দশমিক ৩ পয়েন্ট এবং ভ্রমণ ও অবকাশ খাতে ১৪ দশমিক ৪০ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/এআর