দর বাড়ার শীর্ষে শাহজিবাজার পাওয়ার

sahjibazerস্টকমার্কেট ডেস্ক :

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সবচেয়ে বেশি দর বেড়েছে শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেডের। আগের দিনের সর্বশেষ দরের সঙ্গে আজকের সর্বশেষ দরের হিসাবে কোম্পানিটির শেয়ারের দর বেড়েছে ৯.৯৫ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত সোমবার দিন শেষে শাহজিবাজার পাওয়ারের মূল্য ছিল ১৬৯.৮০ টাকা। মঙ্গলবার দিনশেষে কোম্পানিটির শেয়ারের মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮৬.৭ টাকায়।

দর বাড়ার শীর্ষে থাকা অন্য কোম্পানী গুলোর মধ্যে- বিএসআরএম লিমিটেডের ৯.৯০ শতাংশ, ইসলামী ব্যাংকের ৯.৮২ শতাংশ, কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্সের ৯.০২ শতাংশ, রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্সের ৮.৮৪ শতাংশ, বঙ্গজের ৮.৭২ শতাংশ, বিজিআইসির ৮.৪৮ শতাংশ, রূপালি ইন্স্যুরেন্সের ৮.২৩ শতাংশ, এক্সিম ব্যাংক ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের ৮.১৯ শতাংশ, নর্দার্ন ইন্স্যুরেন্সের ৭.৫ শতাংশ দর বেড়েছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম /এনএ

বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ঈদের আমেজ

Brokerage-smbdনিজস্ব প্রতিবেদক :

ঈদের ছুটি শেষে দেশের উভয় শেয়ারবাজারে লেনদেন উর্ধ্বমূখী প্রবণতার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে। ঈদ পরবর্তী প্রথম দিনের লেনদেনে রাজধানীর ব্রোকারেজ হাউজে উপস্থতি বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ছিলো ঈদের আমেজ।

হাউজগুলোতে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি ছিল তুলনামুলক কম। আর যারা হাউজে উপস্থিত হয়েছেন তারা প্রত্যেকেই একে অপরকে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন।

ঈদ পরবর্তী প্রথম কার্যদিবস উত্থান প্রবণতায় লেনদেন শেষ হওয়াতে বিনিয়োগকারীরা নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের স্বার্থে এ ধারা বজায় রাখার দাবি জানিয়েছেন।

বিনিয়োগকারী মোঃ একরাম হোসনে বলেন, প্রতি ঈদের পরই বাজার একটু ভাল থাকে। তারপর আবার পতনের ধারায় চলে যায়। যেহেতু বর্তমান বাজার এখন পর্যন্ত অস্থিতিশীল তাই যেকোন উপায়ে সূচকের উর্ধ্বগতি বজায় রাখা প্রয়োজন। তা না হলে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা আবারো ক্ষতির সম্মুখিন হবে।

বিনিয়োগকারীরা বলেন, শেয়ারবাজার ভাল থাকায় এবারের ঈদ পরবিার পরিজন নিয়ে অনেকটা আনন্দে কেটেছে। বাজার পরিস্থিতি যাতে এরকম ভালো থাকে সে লক্ষ্যে সরকার ও নীতিনির্ধারকদের সচেষ্ট হতে হবে।
স্টকমার্কেটবিডি.কম /এনএ

  1. লাফার্জ সুরমা
  2. গ্রামীণফোন
  3. এসিআই লিমিটেড
  4. খুলনা পাওয়ার
  5. আরকে সিরামিকস
  6. স্কয়ার ফার্মা
  7. ইউনাইটেড পা্ওয়ার
  8. ইফাদ অটোস
  9. বেক্সিমকো ফার্মা
  10. ওয়েষ্টার্ণ মেরিণ।

ঈদের পরেও ডিএসইতে উর্ধ্বমূখী লেনদেন অব্যাহত

index hনিজস্ব প্রতিবেদক :

ঈদের আগে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) টানা ছয় দিন উর্ধ্বমূখী লেনদেন শেষ হয়। ঈদের পরেও লেনদেনের এ্রই ধারা অব্যাহত রয়েছে। এদিন ডিএসইতে মোট ৪৯২ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৯২ কোটি ৬৭ লাখ টাকা। গত সোমবার ৫২০ কোটি ২৬ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছিল। সে তুলনায় আজ লেনদেন কমেছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৭৫.১৭ পয়েন্ট বেড়ে দিনশেষে ৪৭৩১.৩১ পয়েন্টে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। এ নিয়ে টানা ৭ দিন সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় শেষ হয়েছে দিনের লেনদেন।

লেনদেনে অংশ নেয়া ৩১৭ টি কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে ২২৮ টির দর বেড়েছে, কমছে ৬১ ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮ টির দর।

লেনদেনের শীর্ষে উঠে এসেছে লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, গ্রামীণফোন, এসিআই লিমিটেড, খুলনা পাওয়ার, আরকে সিরামিকস, স্কয়ার ফার্মা, ইউনাইটেড পা্ওয়ার, বেক্সিমকো ফার্মা ও ওয়েষ্টার্ণ মেরিণ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/জেড

বন্দরনগরীতে বিএসআরএমের ইজিএম ২৫ আগস্ট

bsrmস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বিএসআরএম স্টিল লিমিটেড বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) আহ্বান করেছে। আগামী ২৫ আগস্ট বন্দরনগরী চট্টগ্রামে এ ইজিএম অনুষ্ঠিত হবে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এই বিশেষ সভায় ২০০ কোটি টাকার জিরো কুপন বন্ড অনুমোদন করবে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

ইজিএমের জন্য বিনিয়োগকারী বাছাইয়ে রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২৯ জুলাই। আগামী ২৫ আগস্ট বেলা ৪টায় নগরীর লাভলেনে অবস্থিত স্মরণিকা কমিউনিটি সেন্টারে ইজিএম অনুষ্ঠিত হবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এনএ/এম

শাহজিবাজার পাওয়ার হল্টেড

sahjibazerস্টকমার্কেট ডেস্ক:

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মঙ্গলবার লেনদেনের প্রথম ঘণ্টার মধ্যে হল্টেড হয়ে গেছে শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড। বিক্রেতা না থাকায় শেয়ারগুলোর মূল্য স্পর্শ করছে সার্কিট ব্রেকারে।

সামনে কোম্পানিটির শেয়ার দর আরও বাড়তে পারে এমন আশায় বিনিয়োগকারীরা শেয়ার বিক্রি করছেন না। এতে শেয়ারটি হল্টেড হয়ে মূল্য স্পর্শ করছে সার্কিট ব্রেকারে।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টা ৫০ মিনিটে শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেডের সর্বশেষ ১০ লাখ ৯৯ হাজার ১৩১টি শেয়ার কেনার প্রস্তাব দেখাচ্ছিল। কিন্তু বিক্রেতার ঘরে কোনো শেয়ার বিক্রির প্রস্তাব ছিল না। হল্ডেট হওয়ার আগে সর্বশেষ লেনদেনটি হয় ১৮৬ টাকা ৭০ পয়সায়।

আজ শুরু থেকেই এই শেয়ারের দর ছিল ১৬৯ টাকা ৮০ পয়সা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এনএ

বৃটিশ আমেরিকান টোবাকোর মুনাফা কমেছে

batbcস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো কোম্পানি (বিএটিবিসি) চলতি বছরের প্রথম ৬ মাসে কর পরবর্তী মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে। এই সময় কোম্পানিটি মুনাফা করেছে ২৭৬ কোটি টাকা। যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২৮৭ কোটি টাকা।

কোম্পানিটির অর্ধবার্ষিকী (জানুয়ারি, ১৫ – জুন, ১৫) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনে এ তথ্য বেরিয়ে আসে।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, শেয়ার প্রতি কোম্পানিটির আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৬ টাকা ০৫ পয়সা। আগের বছর একই সময় কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৪৭ টাকা ৮৭ পয়সা।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের এপ্রিল হতে জুন পর্যন্ত কোম্পানিটি কর পরবর্তী মুনাফা করেছে ৯৭ কোটি টাকা। এসময় শেয়ার প্রতি আয় করেছে ১৬ টাকা ২১ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা ১৬৩ কোটি টাকা ও শেয়ার প্রতি আয় ছিল ২৭ টাকা ১৭ পয়সা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এনএ

৬ মাসে গ্রামীণফোনের মুনাফা কম

grameenস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ার বাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি গ্রামীণফোন চলতি বছরের প্রথম ৬ মাসে কোম্পানিটির কর পরবর্তী মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে। এ সময় কোম্পানিটি এই মুনাফা করেছে ১ হাজার ৪৭ কোটি ৭০ লাখ ১০ হাজার টাকা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটি মুনাফা করেছিল ১ হাজার ৫৭ কোটি ৭০ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

কোম্পানিটির অর্ধবার্ষিকী প্রান্তিকের (জানুয়ারি, ১৫ – জুন, ১৫) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনে এ তথ্য বেরিয়ে আসে।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭ টাকা ৭৬ পয়সা। যা আগের বছরের তুলনায় দশমিক ৮৯ শতাংশ কম। আগের বছর একই সময় কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৭ টাকা ৮৩ পয়সা।

উল্লেখ্য, গত ৩ মাসে (এপ্রিল,১৫ – জুন,১৫) কোম্পানিটি কর পরবর্তী মুনাফা করেছে ৫১২ কোটি ৬৯ লাখ ৭০ হাজার টাকা। আর শেয়ার প্রতি আয় করেছে ৩ টাকা ৮০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা করেছিল ৫৪১ কোটি ৬৯ লাখ ৯০ হাজার টাকা। আর শেয়ার প্রতি আয় করেছিল ৪ টাকা ১ পয়সা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এনএ

পাবলিক মার্কেটে শাহজিবাজার পাওয়ারের লেনদেন শুরু

sahjiনিজস্ব প্রতিবেদক :

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) শক্তি ও জ্বালানী খাতের কোম্পানি শাহজিবাজার পাওয়ারকে স্পট মার্কেট থেকে অব্যাহতি দিয়েছে। আজ ২১ জুলাই মঙ্গলবার থেকে এই কোম্পানির শেয়ার পাবলিক মার্কেটে লেনদেন শুরু হবে।

কমিশনের ৫৫১তম সভায় শাহজিবাজার পাওয়ারের শেয়ার স্পট মার্কেট লেনদেনে বাধ্যবাধকতা থেকে অব্যাহতি দিয়ে নিয়মিত বাজারে লেনদেনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এখন থেকে কোম্পানিটি নিয়মিত বা সাধারন মার্কেটে লেনদেন হবে। তবে কোম্পানিটির শেয়ার নন-মার্জিনেবল থাকবে।

উল্লেখ্য ২০১৪ সালের ১৮ নভেম্বর বিএসইসির ৫৩২তম কমিশন সভায় শাহজিবাজার পাওয়ারকে স্পট মার্কেটে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। এ ছাড়া ওইদিনে কোম্পানিটির শেয়ারকে নন-মার্জিনেবল হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এ দুই সিদ্ধান্ত ২০১৪ সালের ১৯ নভেম্বর থেকে কার্যকর ছিল।

এর আগে ২০১৪ সালের ১১ আগস্ট থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য শাহজিবাজার পাওয়ারের শেয়ার লেনদেন স্থগিত করার ঘোষণা দেয় ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/বি