বিএসআরএমের বোর্ড সভা ১০ ফেব্রুয়ারি

bsrmনিজস্ব প্রতিবেদক :
শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত প্রকৌশল খাতের কোম্পানি বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলস লিমিটেডের বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি। এদিন বিকেল ৫টায় এই সভা অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এই তথ্য জানা যায়।

সূত্রে জানা গেছে, সভায় কোম্পানির গত ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫ সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

কোম্পানিটি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের লিস্টিং রেগুলেশন ১৯(১) অনুযায়ী সভাটি করবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

আমাম সি ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ ও ঢাকা ফিশারিজকে জরিমানা

bsecনিজস্ব প্রতিবেদক :

অনিয়মের দায়ে আমাম সি ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ ও ঢাকা ফিশারিজ লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদের সকল সদস্যকে জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

এই দুই কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ অন্য সব পরিচালকে দুই লাখ টাকা করে জরিমানা গুণতে হবে।

বিএসইসির ৫৬৫ তম সভায় মঙ্গলবার এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আমাম সি ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ ২০১৪ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত বছরে নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন জমা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। যা সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর রুল ১২ এর লঙ্ঘন।

একইভাবে ২০১৪ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর সমাপ্ত প্রথম প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন, ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের সমাপ্ত অর্ধবার্ষিক প্রতিবেদনএবং ২০১৫ সালের ৩১ মার্চ সমাপ্ত তৃতীয় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন জমা দিতে ব্যর্থ হয়েছে কোম্পানিটি। যা সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন রুলস ১৯৮৭ এর রুল ১৩ এবং কমিশনের নোটিফিকেশন নং–এসইসি/ সিএমআরআরসিডি/২০০৮-১৮৩/এ্যাডমিন/০৩-৩১, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০০৯ এর লঙ্ঘন।

এসব অনিয়মের জন্য বিএসইসি আমাম সি ফুড ইন্ডাস্ট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ প্রত্যেক পরিচালককে ২ লাখ টাকা করে জরিমানা করার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেই সঙ্গে প্রতিবেদনগুলো বিএসইসিতে জমা না দেওয়া পর্যন্ত প্রতিদিনের জন্য ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আমাম সি ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের মতো একই ধরনের অনিয়ম করেছে ঢাকা ফিশারিজ লিমিটেড। এ জন্য এই প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ প্রত্যেক পরিচালককে ২ লাখ টাকা করে জরিমানা করার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএসইসি। সেই সঙ্গে আমাম সি ফুডের মতো প্রতিবেদনগুলো বিএসইসিতে জমা না দেওয়া পর্যন্ত প্রতিদিনের জন্য ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বিএসইসি জানিয়েছে, ঢাকা ফিশারিজ লিমিডেট ২০১৪ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত বছরে নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন জমা দিতে পারেনি। যা সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ রুলস, ১৯৮৭ এর রুল ১২ এর লঙ্ঘন।

একইভাবে ২০১৪ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর সমাপ্ত প্রথম প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন, ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের সমাপ্ত অর্ধবার্ষিক প্রতিবেদনএবং ২০১৫ সালের ৩১ মার্চ সমাপ্ত তৃতীয় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন জমা দিতে ব্যর্থ হয়েছে কোম্পানিটি। যা সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন রুলস ১৯৮৭ এর রুল ১৩ এবং কমিশনের নোটিফিকেশন নং–এসইসি/ সিএমআরআরসিডি/২০০৮-১৮৩/এ্যাডমিন/০৩-৩১, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০০৯ এর লঙ্ঘন। এ জন্য কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ সদস্যদের জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ