সিএসই পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন ২১মে

cseনিজস্ব প্রতিবেদক :

আগামি ২১ মে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পরিচালনা পর্ষদের একটি আসনে এ নির্বাচন হবে। একইসাথে ওইদিন সিএসই’র বার্ষিক সাধারন সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে।

সিএসইসূত্রে জানা যায়, আগামি ২১ মে পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন ও এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে একটি আসনের বিপরীতে আইল্যান্ড সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন ও বি.কে ক্যাপিটাল ম্যানেজম্যান্টের পরিচালক অব: মেজর এমদাদুল ইসলাম প্রতিদ্বন্দীতা করবেন।

ওইদিন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ হবে। এরপরে বিকাল ৩টা থেকে এজিএম শুরু হবে। নির্বাচন ও এজিএম চট্টগ্রাম অফিসে অনুষ্ঠিত হবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম

মডার্ণ ডায়িংয়ের মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই

modernস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বস্ত্রখাতের কোম্পানি মডার্ণ ডায়িং লিমিটেডের শেয়ারের দর অস্বাভাবিকভাবে বেড়েছে। আর এর দর বাড়ার পিছনে কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই বলে জানিয়েছে কোম্পানি। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

গত ১১ মে এ শেয়ারের দাম ছিল ৮০ টাকা ৮ পয়সা, যা আগ ১৮ মে সর্বশেষ ১১১ টাকা ৬০ পয়সায় লেনদেন হয়।

শেয়ারটির এই দর বাড়াকে অস্বাভাবিক বিবেচনা করে এর পেছনের কারণ জানতে চেয়ে কোম্পানিকে নোটিস পাঠায় ডিএসই ।

এর জবাবে মডার্ণ ডায়িং বলেছে, কোনো রকম মূল্য সংবেদনশীল তথ্য ছাড়াই এই শেয়ারের দর বাড়ছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ/এলকে

ওয়ান ব্যাংকের শেয়ার বিক্রয়ের ঘোষণা

one bank-smbdস্টকমার্কেট ডেস্ক:

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকিং খাতের কোম্পানি ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডের একজন উদ্দোক্তা পরিচালক সাড়ে ৭ লাখ শেয়ার বিক্রয়ের ঘোষণা দিয়েছেন। টাকা স্টক একচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ড. হাজি মোহাম্মদ আরশেদ আলী নামে ব্যাংকের পরিচালক হাতে থাকা ২ লাখ ১৯ হাজার ৬৮৯ টি শেয়ার বিক্রি করবেন। তার নিকট মোট ১গ লাখ ৫ হাজার ৫৫৯ টি শেয়ার রয়েছে।

এই উদ্যোক্তা এসব শেয়ার বাজারদরে বিক্রয় করবেন।

তিনি এই ঘোষণার ৩০ কার্য দিনের মধ্যে উল্লেখিত পরিমাণ শেয়ার ক্রয় করবেন বলে ব্যাংকটির পক্ষ থেকে জানানো হয়।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমআর

ডিএসইতে ৩৬১ ও সিএসইতে ২২ কোটি টাকার লেনদেন

DSE_CSE-smbdনিজস্ব প্রতিবেদক :

দেশের উভয় শেয়ারবাজারে লেনদেন ও সব ধরণের মূল্য সূচক বেড়েছে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হয়েছে ৩৬১ কোটি টাকার। আর চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২২ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে।

বুধবার দিনশেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন হয়েছে ৩৬১ কোটি ২৯ লাখ টাকার শেয়ার। যা গতকাল মঙ্গলবার ছিল ৩০২ কোটি ২ লাখ টাকা। এহিসাবে এদিন লেনদেন ৫৯ কোটি টাকা বেড়েছে।

এদিন ডিএসইতে ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৩৭.৬৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৪৩৬৪ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৯.৭৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১০৭১ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৯.০২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৭০৮ পয়েন্টে।

এদিন দিনভর লেনদেন হওয়া ৩১৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৯৬টির, কমেছে ৮২টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪১ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার দর।

ডিএসইতে টাকার অঙ্কে লেনদেনে শীর্ষ কোম্পানিগুলো হচ্ছে- লাফার্জ সুরমা, বিএসআরএম লি., আরএকে সিরামিক্স, ইউনাইটেড পাওয়ার, এমজেএলবিডি, অরিয়ন ফিউশন, ডরিন পাওয়ার, বিএটিসি, ইউনিক হোটেল ও কেয়া কসমেটিকস।

এদিকে অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২২ কোটি ১৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সিএসইতে টাকার অংকে লেনদেন হয়েছে ১৮ কোটি ১৬ লাখ টাকার।

এদিন সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৩১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৪৫১ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৬৭টির, কমেছে ৫৪ টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯ টির।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/এলকে

আরএকে সিরামিক্সের টাইলস প্লান্টের উৎপাদন শুরু

RAK-CERAMIKস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারতালিকাভুক্ত সিরামিক খাতের কোম্পানি আরএকে সিরামিক্স লিমিটেডের কারখানা সম্প্রসারণের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। কোম্পানিটি গত ১৭ মে, মঙ্গলবার থেকে টাইলস প্লান্টের বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু করেছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, কোম্পানিটি উৎপাদন ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য নতুন যন্ত্রপাতি স্থাপনের কাজ সম্পন্ন করেছে। এতে প্রতিদিন প্রায় ১০ হাজার স্কয়ার মিটার টাইলস উৎপাদনের কাজ করা যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, নতুন টাইলস উৎপাদনে কোম্পানিটির বছরে প্রায় ৩০০ কোটি ৮০ লাখ টাকার টার্নওভার বাড়বে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/আর

তালিকাভুক্ত ৩ টি সহ ৬ বিমা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

idr-smbdনিজস্ব প্রতিবেদক :

বিমা আইন লঙ্ঘনের দায়ে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত তিনটিসহ ৬ ইন্সুরেন্সের উচ্চ পর্যায়ের ১০ কর্মকর্তা ও এক প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছে এর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। এর মধ্যে কর্মকর্তাদের মোট মিলে ৬ লাখ ও ওই প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। আইডিআরএ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, বীমা আইন লঙ্ঘন করায় মোট ০৮টি বীমা কোম্পানিকে অভিযুক্ত করা হয়। এর মধ্যে ৬টিকে জরিমানা করা হয় এবং বাকি ২ কোম্পানিকে সতর্ক করা হয়েছে।
আইডিআরএ লোগো

২০১৪ সালের নিরীক্ষিত বার্ষিক হিসাব বিবরণী যথাসময়ে কর্তৃপক্ষ বরাবর দাখিল না করায় এ জরিমানা করা হয়েছে।

তালিকায় রাষ্ট্র মালিকানাধীন সাধারণ বিমা কর্পোরেশনের কর্মকর্তার নামও রয়েছে।

জরিমানাকৃত ব্যক্তিদের মধ্যে জনতা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ফজলুল হক খান ও কোম্পানি সচিব মো. সাইফুল ইসলাম, সাধারণ বীমা কর্পোরেশনের কোম্পানি সচিব ও বোর্ড ডিজিএম, প্যরামাউন্ট ইন্স্যুরেন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, কোম্পানি সচিব ও প্রধান অর্থ কর্মকর্তা, সিকদার ইন্স্যুরেন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তৌফিকুর রহমান ও প্রধান অর্থ কর্মকর্তা, মেঘনা ইন্স্যুরেন্সের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনির হোসাইন।

এদের প্রত্যেকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিষ্ঠান হিসেবে একমাত্র সাউথ এশিয়া ইন্স্যুরেন্সকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সব মিলে জরিমানার পরিমাণ ৬ লাখ টাকা।

এছাড়া একদিন বিলম্ব করায় এশিয়া ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড এবং ইসলামী কমার্শিয়াল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডকে শুনানি শেষে সর্তক করা হয়।

আইডিআরএ সূত্রে জানা যায়, বীমা আইন অনুযায়ী বীমা কোম্পানির ২০১৪ সালের নিরীক্ষিত বার্ষিক হিসাব বিবরণী পরের বছর র্অথাৎ ২০১৫ সালের ৩০ জুনের মধ্যে কর্তৃপক্ষ বরাবর দাখলি করার কথা। কিন্তু আইন লঙ্ঘন করে যথা সময়ে হিসাব জমা দেয়নি কোম্পানিগুলো।

এ ঘটনায় আইডিআর কার্যালয়ে অভিযুক্ত কোম্পানিগুলোকে নিয়ে আজ এক শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে প্রতিষ্ঠানগুলোর মুখ্য ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের উল্লিখিত হারে জরিমানা করা হয়।

আইডিআরএ চেয়াম্যান এম শেফাক আহমেদের সভাপতিত্বে শুনানিতে অংশ নেন কর্তৃপক্ষের সদস্য মো. কুদ্দুস খান, সুলতান-উল-আবেদীন মোল্লা এবং মো. মুরশিদ আলম।
স্টকমার্কেটবিডি.কম/

ক্ষতিগ্রস্তদের পুনঃঅর্থায়নের মেয়াদ বাড়ানোর প্রস্তাব

bsecনিজস্ব প্রতিবেদক :

শেয়ারবাজার ধসে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের ক্ষতি পোষাতে সরকারগঠিত বিশেষ পুনঃঅর্থায়ন তহবিলের মেয়াদ আরও একবছর বাড়তে পারে।

এই তহবিলের ঋণের সুদের হার এক শতাংশ কমিয়ে মেয়াদ ২০১৭ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়াতে সরকারের কাছে সুপারিশ করার সিদ্ধান্ত মঙ্গলবার নেওয়া হয়েছে বলে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক সাইফুর রহমান জানিয়েছেন।

তহবিলটির তদারকির দায়িত্বে থাকা শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থার এই কর্মকর্তা বলেন, “এই ঋণের সুদের হার ৯ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৮ শতাংশ করার বিষয়ে সুপারিশ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।”

সুদহার কমানোর এই প্রস্তাব শুধু তহবিলের ছাড় না হওয়া অর্থের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে বলে জানান সাইফুর।

“তবে সবকিছু নির্ভর করছে মন্ত্রণালয়ের উপর। মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিলেই এটি কার্যকর হবে।”

ঋণ বিতরণ নিয়ে পুনঃঅর্থায়ন তহবিল তদারক কমিটির মঙ্গলবারের বৈঠকের কার্যবিবরণী অনুমোদিত হলেই অর্থ মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা হবে বলে জানান বিএসইসির নির্বাহী কর্মকর্তা।

২০১৩ সালে ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের পুনঃঅর্থায়ন তফসিল বা নতুন ঋণের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৯ শতাংশ সুদ আরোপ করে ৯০০ কোটি টাকার সহায়তা তহবিল গঠন করা হয়, যার মেয়াদ ২০১৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ধরা ছিল।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম