সিএমসি কামালের ৪০০ কোটি টাকার বন্ড ছাড়ার সিদ্ধান্ত

cmc--kamal.jpg&w=50&h=35নিজস্ব প্রতিবেদক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সিএমসি কামালের ৪০০ কোটি টাকার বন্ড ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ। ইতিমধ্যে এই বন্ড ছাড়ার বিষয়টিকে শেয়ারহোল্ডারদের নিকট হতে অনুমোদন নিয়েছে । কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

আজ রবিবার রাজধানীর গুলশানে একটি ক্লাবে একটি বিশেষ সাধারণ সভায় (ইজিএম) শেয়ারহোল্ডাররা এই মূলধন বাড়ানোর বিষয়টিকে অনুমোদন দেয়।

এর আগে কোম্পানির ৪০০ কোটি টাকার বন্ড ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেয় পরিচালনা পর্ষদ। এই বন্ডটি হবে ইসলামী শরিয়ত মোতাবেক পরিচালিত বন্ড।

সম্প্রতি সিএমসি কামাল টেক্সটাইল ও অ-তালিকাভুক্ত আলিফ ইউনিটেক্স একীভূত হয়। বর্তমানে কোম্পানি দুটি একই ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের আওতায় পরিচালিত হচ্ছে।

ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে, একীভূতকরণ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে কোম্পানি আইনের ২২৮ ও ২২৯ ধারা অনুসারে আলিফ ইউনিটেক্সের শেয়ারহোল্ডারদের নামে সিএমসি কামালের ৭ কোটি ৬০ লাখ ৫০ হাজার শেয়ার ইস্যু করে সিএমসি কামালের পরিচালনা পর্ষদ। এর মধ্য দিয়ে আলিফ ইউনিটেক্সের সব সম্পদ ও দায় সিএমসি কামালের নামে নথিভুক্ত হবে। উচ্চ আদালত, ইজিএমে শেয়ারহোল্ডার ও শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সম্মতিক্রমে একীভূতকরণের এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নযোগ্য।

প্রস্তাবিত একীভূতকরণ স্কিম অনুসারে, নিজ কোম্পানির প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে আলিফ ইউনিটেক্সের শেয়ারহোল্ডাররা ৮ দশমিক ৪৫টি সিএমসি কামাল শেয়ার পায়।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/আই

তিন কোম্পানির শেয়ার অফিস পরিবর্তন

officeস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত তিন কোম্পানির শেয়ার অফিস পরিবর্তন করা হয়েছে। কোম্পানিগুলো হচ্ছে- মিথুন নিটিং, তাল্লু স্পিনিং ও বঙ্গজ লিমিটেড। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, এই কোম্পানিগুলোর বর্তমান শেয়ার অফিস গুলশান-১ এ সাউথ এভিনিউ টাওয়ার নেওয়ার হয়েছে।

এর আগে কোম্পানিটির শেয়ার অফিস ছিল মতিঝিল বা/এ সারা টাওয়ারের ১৮ তলায় ছিল।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ/এলকে

‘‌বাজেট অধিবেশনে শেয়ারবাজাকে গতিশীল করার দাবি‌’

Budget 2015-16স্টকমার্কেট ডেস্ক :

বহুজাতিক কোম্পানিগুলোকে তালিকাভুক্তি ও প্রণোদনার মাধ্যমে শেয়ারবাজাকে গতিশীল করার দাবি জানানো হয়েছে। জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে এই দাবি জানান সাংসদরা।

আজ রবিবার অধিবেশন চলাকালে ফরিদপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. আব্দুর রহমান এই দাবি উত্থাপন করেন।

এ সময় তিনি বলেন, শেয়ারবাজার বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখছে । তাই বাজেট প্রস্তাবনায় শেয়ারবাজারের বিভিন্ন সংস্কারের কথা তুলে ধরেছেন অর্থমন্ত্রী। তবে এই খাতটি এখনও বিনিয়োগকারীদের পরিপূর্ণ আস্থা অর্জনে সফল নয়।

তিনি বলেন, বিশেষ কোনো সুবিধা না থাকায় দীর্ঘদিন ধরে দেশের শেয়ারবাজারে কোনো বহুজাতিক কোম্পানি তালিকাভুক্ত হচ্ছে না। তাতে এই বাজার গতিশীলতা হারাচ্ছে। শেয়ারবাজারকে গতিশীল করতে বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর তালিকাভুক্তি গুরুত্বপূর্ণ।

শেয়ারবাজারের গতিশীলতা বাড়াতে কিছু প্রণোদনার দাবিও জাতীয় সংসদে তুলে ধরেন এই সংসদ সদস্য। তিনি বলেন, বাজারের স্বার্থে স্টক এক্সচেঞ্জকে ডিমিউচ্যুয়ালাইড করেছেন অর্থমন্ত্রী। ডিমিউচ্যুয়ালাইড পরবর্তী সময়ে ৫ বছর কর রেয়াত সুবিধার কথাও বলেছিলেন তিনি। তবে এটা সম্পূর্ণ দেওয়া হয়নি। শেয়ারবাজারকে শক্ত ভিত্তির ওপর দাড় করাতে হলে এই সুবিধা দেওয়া প্রয়োজন।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রস্তাবিত দাবির প্রসঙ্গে আব্দুর রহমান বলেন, ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন পরবর্তী ৫ বছরের জন্য কর অবকাশ সুবিধা এবং ট্রেকহোল্ডারদের কাছ থেকে উৎসে কর আরও হ্রাসের প্রস্তাব থাকলেও প্রস্তাবিত বাজেটে সেগুলো আসেনি। ডিএসইর প্রস্তাবগুলো বিবেচনার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

প্রসঙ্গত, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে ২০০৯ সাল থেকে আর কোনো বহুজাতিক কোম্পানি তালিকাভুক্ত হয়নি। ডিএসইতে মোট ১৩টি বহুজাতিক কোম্পানি তালিকাভুক্ত রয়েছে। এ কোম্পানিগুলোর বর্তমান বাজার মূলধন ডিএসইর বাজার মূলধনের ২৫ দশমিক ৬২ শতাংশ। আরও বহুজাতিক কোম্পানি বাজারে আনতে পারলে বাজারে মূলধন প্রবেশের পাশাপাশি বাজার গতিশীল হবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এলকে

প্রিমিয়ার লিজিং জেড থেকে বি ক্যাটাগরিতে

primiur-smbdস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান প্রিমিয়ার লিজিং এন্ড ইনভেষ্টমেন্ট লিমিটেড ‘বি’ ক্যাটাগরিতে উন্নীত হয়েছে। এই কোম্পানি সমাপ্ত অর্থবছরে সাড়ে ৫ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়ে ‘জেড’ থেকে ‘বি’ ক্যাটাগরিতে উন্নীত হয়েছে।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, আগামীকাল ১৩ জুন সোমবার থেকে এই কোম্পানি ‘বি’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন করবে শেয়ারবাজারে।

উল্লেখ্য, গত ৬ জুন বিনিয়োগকারীদের নিজ ঠিকানায় এই লভ্যাংশের টাকা পাঠিয়েছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এলকে

  1. একমি ল্যাব.
  2. লিন্ডে বিডি
  3. বিএসআরএম লি
  4. শাহজিবাজার পাওয়ার
  5. লাফার্জ সুরমা
  6. অলিম্পিক এক্সেসরিজ
  7. অরিয়ন ফিউশন
  8. ডরিন পাওয়ার
  9. আমান ফিডস
  10. ইসলামী ব্যাংক ।

ডিএসইতে ৩৩১ ও সিএসইতে ২২ কোটি টাকার লেনদেন

DSE_CSE-smbdনিজস্ব প্রতিবেদক :

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দিনের শেষে টাকার অংকে লেনদেনের পরিমান দাঁড়িয়েছে ৩৩১ কোটি টাকা। এদিন চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) লেনদেন ২২ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

রবিবার দিনভর ডিএসইতে ৩৩১ কোটি ৯৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিন বৃহস্পতিবার ছিল ৩৪০ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। এ হিসাবে দিনের লেনদেন ৯ কোটি টাকা কমেছে।

এদিন ডিএসইতে ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৯.৫৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪৪০৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ০.৬০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১০৮৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ০.৬৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৭৩৭ পয়েন্টে।

এদিন দিনভর লেনদেন হওয়া ৩১৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৯০ টির, কমেছে ১৬৯ টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৭ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার দর।

এদিন ডিএসইতে টাকার অঙ্কে লেনদেনে শীর্ষ কোম্পানিগুলো হচ্ছে- একমি ল্যাব., লিন্ডে বিডি, বিএসআরএম লি., শাহজিবাজার পাওয়ার, লাফার্জ সুরমা, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, অরিয়ন ফিউশন, ডরিন পাওয়ার, আমান ফিডস ও ইসলামী ব্যাংক ।

এদিকে রবিবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২২ কোটি ২০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের দিন বৃহস্পতিবার সেখানে ২৩ কোটি ৯০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

এদিন সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৫৭৪ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২২৬ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৩টির, কমেছে ১২৩ টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০ টির।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/এলকে

বড়ধরনের লোকসানের দিকে আরএন স্পিনিং

rn spinনিজস্ব প্রতিবেদক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বস্ত্রখাতের প্রতিষ্ঠান আরএন স্পিনিং মিলস লিমিটেডের সর্বশেষ তিন মাসে শেয়ারপ্রতি বড় ধরণের লোকসানে পড়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সম্প্রতি কোম্পানিটির চলতি বছরের এই প্রান্তিকের (জানুয়ারি’১৬ থেকে মার্চ’১৬) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনে এই আয় বা ইপিএস প্রকাশ করা হয়েছে। প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির শেয়ারহোল্ডাররা শেয়ারপ্রতি ৪৯ পয়সা করে লোকসানে রয়েছে।

গত বছর এ কোম্পানির লোকসান ছিল না। সে বছর এই তিন মাসে বা জানুয়ারি-মার্চ পর্যন্ত শেয়ার প্রতি মুনাফা ছিল ১১ পয়সা।

চলতি বছর একই প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৪.৯৬ টাকা , যা গত বছর একই প্রান্তিকে ছিল ২৫.৪৫ টাকা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এইচ/এএআর