লংকা বাংলার জিরো কুপন বন্ডের সমাপ্তি ঘোষণা

4ba0e3fc7d65661ee8f0c7442588f662-583d7d357475bনিজস্ব প্রতিবেদক :

সিকিউরিটিজ কোম্পানি, লংকাবাংলা সিকিউরিটিজ লিমিটেড এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ৪৮ কোটি টাকার ইস্যুকৃত নন-কনভার্টিবল জিরো কুপন বন্ডের আর্থিক সমাপ্তি ঘোষণা করে। এই প্রথম বাংলাদেশের কোনও ব্রোকারেজ কোম্পানি থেকে এই উদ্যোগটি নেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে বিচারপতি সিদ্দিকুর রহমান মিয়া ও ড. মোহাম্মদ আবদুল মজিদ, উপস্থিত ছিলেন ।

ঢাকাস্থ লা মেরিডিয়ান হোটেলের স্কাই বলরুমে অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ৪৮ কোটি টাকার ইস্যুকৃত নন-কনভার্টিবল জিরো কুপন বন্ডের আর্থিক সমাপ্তি গত রবিবার ঘোষণা করে।

বিচারপতি সিদ্দিকুর রহমান এই উদ্যোগের প্রশংসা করেন এবং শেয়ারবাজারে অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানকেও “জিরো কুপন বন্ড” আনার উদ্যোগ নিতে উৎসাহিত করেন। তিনি আরও বলেন, এ ধরনের উদ্যোগ শেয়ারবাজার বিকাশে ও এর শক্ত কাঠামো তৈরিতে সহায়তা করবে।’

অনুষ্ঠানে উপস্থিত কে.এ.এম. মাজেদুর রহমান, সাইফুর রহমান মজুমদার ছাড়াও মোহাম্মদ এ. মঈন মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন চৌধুরী, খাজা শাহরিয়ার, মোহাম্মদ খায়রুল আনাম চৌধুরী এবং খন্দকার কায়েস হাসান উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এই প্রক্রিয়ায় লংকাবাংলা ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড ইস্যু ম্যানেজার ও অ্যারেঞ্জার এবং গ্রিন ডেল্টা ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড রেজিস্ট্রার ও ট্রাস্টি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এসএম

শেয়ারবাজার এখন নিজস্ব শক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছে : খায়রুল হোসেন

bsecনিজস্ব প্রতিবেদক :

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. খায়রুল হোসেন বলেছেন, শেয়ারবাজারে স্থিতিশীলতা ফিরেছে। শেয়ারবাজার এখন নিজস্ব শক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছে। এই গতিতে সূচক ১০ হাজার পয়েন্ট ছাড়ালেও কোনো সমস্যা হবে না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর কাকরাইলে ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি) সম্মেলন কেন্দ্রে তিনি এসব কথা জানান। শেয়ারবাজার মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. খায়রুল হোসেন।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, কয়েকদিন আগে বাজারে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে। গতকাল বুধবার সূচক ৪ হাজার ৮০০ অতিক্রম করেছে। এভাবে যদি ১০ হাজার পয়েন্টও অতিক্রম করে তবে কোনো সমস্যা হবে না।

তিনি বলেন, শেয়ারবাজারে আমাদের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে অনেক আইনগত পরিবর্তন হয়েছে। তবে আজকের এই পরিবর্তন সম্ভব হয়েছে সরকারের শেয়ারবাজার নিয়ে ইতিবাচক ভূমিকার কারণে। আমাদের দেশের পুঁজিবাজার ইউরোপ- আমেরিকার দেশের শেয়ারবাজারের মতোই। তবে এখন বাজারে মাল্টি প্রোডাক্টের অভাব রয়েছে।

আগামী ৩ মাসের মধ্যেই স্বল্প মূলধনী কোম্পানির আলাদা বোর্ড বাজারে আনা হবে। তাতে বাজারে নতুন অর্থ যুক্ত হবে। জিডিপিতে পুঁজিবাজারের অবদানও বাড়বে বলে মনে করেন তিনি।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের এই পরিবর্তনের ফলে বিদেশিরা এখানে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শেয়ারবাজার মেলার উদ্বোধন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব কে. এ. এম মাজেদুর রহমান, ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশন (ডিবিএ) সভাপতি আহমেদ রশীদ লালী, বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশের সভাপতি ছায়েদুর রহমান প্রমুখ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এসএম

দর বাড়ার শীর্ষে লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট

gainerস্টকমার্কেট ডেস্ক:

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বৃহস্পতিবার লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট। এই কোম্পানিটি আজ ৪৮ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, আজ কোম্পানিটি ৬১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৯৯টি শেয়ার হাতবদল করেছে।

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা শাশা ডেনিমস ৩৬ কোটি ৭১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে। এদিন কোম্পানিটি ৫৭ লাখ ৩১ হাজার ২২৬টি শেয়ার হাতবদল করে।

বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমস লিমিটেড ২৯ কোটি ২০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে পেনিনসুলা ১৭ কোটি ৮৪ লাখ টাকা, আরএসআরএম স্টিল ১৭ কোটি ৭১ লাখ টাকা, অলিম্পিক এক্সেসরিজ ১৭ কোটি ২৮ লাখ টাকা, কাশেম ড্রাইসেলস ১৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা, ন্যাশনাল টিউবস ১৬ কোটি ৭৮ লাখ টাকা, ইফাদ অটোস ১৬ কোটি ৭০ লাখ টাকা ও ডরিন পাওয়ার ১৬ কোটি ২৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমআর

বোনাস শেয়ার ছেড়ে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে নতুন কোম্পানি

dividendনিজস্ব প্রতিবেদক :

আইপির মাধ্যমে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া নতুন কোম্পানিগুলো মরিয়া হয়ে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ হিসাবে ঘোষণা করছে। আর এ লভ্যাংশের একটি অংশ যাচ্ছে কোম্পানির পরিচালক বা উদ্দোক্তাদেরও বিও হিসাবে। আর বোনাস শেয়ার হাতে পেয়েই তা বিক্রি করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। ধীরে ধীরে জেগে উঠা সাধারণ বিনিয়োগকারীদের আবারো পথে বসানোর পায়তারা করছে কয়েকটি কোম্পানির মালিক পক্ষ।

আইপিওর মাধ্যমে ২০/২২ কোটি টাকা তােলার অনুমোদন নেওয়ার পরের বছরগুলোতে শত কোটিতে টাকায় নিয়ে যাচ্ছে বোনাস শেয়ার ছেড়ে। আর এসব করছে শেয়ারবাজারকে অস্থির করতে চায় এমন একটি চক্র। বোনাস শেয়ার বিক্রির সময় বাজার ভালো ট্রেন্ডে থাকলে এসব কোম্পানির আরো পোয়াবারো। যেমন ৫০ টাকা হিসাবে ৫ লাখ শেয়ারের দর আসে ২৫ কোটি টাকা। এই প্রাপ্যতা অধিকাংশ কোম্পানির নিকট খুব সহজ।

নতুন কোম্পানিগুলোর বোনাস শেয়ার ছাড়ার এই প্রক্রিয়াকে আরো ব্যাখ্যা করছেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা। তাদের মতে, কোম্পানি যদি ভালো ব্যবসা করে তাহলে বোনাস শেয়ারের পাশাপাশি নগদ লভ্যাংশ দিতে পারে। নতুন কোম্পানির ১৫/২০ শতাংশ হারে বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ ঘোষণাকে কোনো ভাবেই ভালো হিসাবে মানতে নারাজ তারা।

দুবছর আগে আইপিও প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা একটি কোম্পানি ১৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার ঘোষণা করে। এই বোনাস ঘোষণা আসে চলতি বছরের অক্টোবর মাসের শুরুতে। কোম্পানিটি আরো কৌশলী হয়ে এসব শেয়ারকে সিডিবিএলকে দিয়ে বিওতে জমা করে নেয় অল্প সময়ের মধ্যে। নভেম্বরের শেষ দিকেই এসব শেয়ার বিওতে জমা দেয় বলে জানা যায়। এর পরের সপ্তাহেই কোম্পানিটির পরিচালক/উদ্দোক্তাদের প্রায় ৮ শেয়ার বিক্রি করার সিদ্ধান্ত জানায়।

ডিএসই সূত্রে জানা যায়, এমডিসহ পরিচালকদের হাতে কোম্পানিটির ইস্যুকৃত বোনাস শেয়ারের মধ্যে থেকে ৭ লাখ ৮৪ হাজারটি শেয়ার বিক্রি করতে চায় কোম্পানিটি। কোম্পানির শেয়ারটি বিগত একমাসের গড় মূল্য ছিল ১৭.৮০ টাকা। এহিসাবে শেয়ারগুলো মোট মূল্য দাঁড়ায় প্রায় ১৪ কোটি টাকা। অর্থ্যাৎ ২০ কোটি টাকার আইপিওতে আসার পরের দুই বছরই একইভাবে বোনাস শেয়ার ছাড়ে কোম্পানিটি, কিছুদিন পরেই তা বিক্রি করে দেয়।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিজান-উর-রশিদ চৌধুরী স্টকমার্কেটবিডিকে বলেন, কোম্পানির বোনাস শেয়ারগুলো একসাথে বিক্রির ঘোষণা দিলে তা নেতিবাচক প্রভাব ফেলে বাজারে। সে সময় শেয়ারটির দর কমে যায়। বিনিয়োগকারীদের ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভবনা থেকে যায়।

তিনি বলেন, এসব কোম্পানির বোনাস শেয়ার বিক্রির একটি নীতিমালা প্রয়োজন। বোনাস শেয়ার বিক্রি না করার একটি সময় সীমা বেধেঁ দেওয়া উচিত। নিয়ন্ত্রক সংস্থার নিকট এ সব বোনাস শেয়ার পরিচালক বা উদ্দোক্তাদের হাতে ৬ মাস ব্লক করে রাখার দাবি করেন তিনি।

চট্টগ্রাম বিনিয়োগ ফোরামের শীর্ষ নেতা এম এ আনিস স্টকমার্কেটবিডিকে বলেন, নতুন কোম্পানির বোনাস শেয়ার ছেড়ে যে ভাবে অর্থ নিচ্ছে তা বড় কষ্টকর। আইপিও পর তালিকাভুক্ত হওয়া নতুন অধিকাংশ কোম্পানিই এ পথে হাঁটছে। এক সময় এই ইস্যুটি নিয়ন্ত্রক সংস্থাকে ভাবিয়ে তুলবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এসএম

  1. অলিম্পিক এক্সসরিজ
  2. বিবিএস
  3. দ্য পেনিনসুলা
  4. লাফার্জ সুরমা
  5. কেয়া কসমেটিকস
  6. শাশা ডেনিমস
  7. জিবিবি পাওয়ার
  8. জেনারেশন নেক্সট
  9. বেক্সিমকো লিমিটেড
  10. প্রিমিয়ার লিজিং।

শেয়ারবাজারে লেনদেন ও সূচক বৃদ্ধি

DSE_CSE-smbdনিজস্ব প্রতিবেদক :

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দিনশেষে লেনদেনের পরিমাণ ৮০৩ কোটি টাকা দাঁড়িয়েছে। এদিন সেখানে আগের দিনের চেয়ে লেনদেন ও মূল্য সূচক বেড়েছে। অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন হয়েছে ৫৩ কোটি টাকার। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৮০৩ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। গতকাল বুধবার সেখানে ৬৩০ কোটি ৫৮ লাখ টাকার লেনদেন হয়।

বৃহস্পতিবার এদিন ডিএসইতে ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২১.৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৪৮২৩ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৮.৯১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১১৪৯ পয়েন্টে। ডিএসই-৩০ সূচক ১২.৩৬ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৭৮৭ পয়েন্টে।

এদিন দিনভর লেনদেন হওয়া ৩২৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৯টির, কমেছে ১২৩টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৫১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার দর।

এদিন ডিএসইতে টাকার অঙ্কে লেনদেনে শীর্ষ কোম্পানিগুলো হচ্ছে-অলিম্পিক এক্সসরিজ, বিবিএস, দ্য পেনিনসুলা, লাফার্জ সুরমা,কেয়া কসমেটিকস,শাশা ডেনিমস, জিবিবি পাওয়ার, জেনারেশন নেক্সট, বেক্সিমকো লিমিটেড ও প্রিমিয়ার লিজিং ।

এদিকে বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৫৩ কোটি ৫৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। গতকাল বুধবার সেখানে ৩৯ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

এদিন সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে ছিল আরএকে সিরামিকস ও লাফার্জ সুরমা লিমিটেড।

এদিন সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৬২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার৮৪০ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৫৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৭টির, কমেছে ৯২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫টির।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এসএম

এমডিসহ সব পরিচালকের শেয়ার বিক্রির ঘোষণা

natinalস্টকমার্কেট ডেস্ক:

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ন্যাশনাল ফিড মিলস লিমিটেডের এমডিসহ ৪ জন পরিচালক শেয়ার বিক্রয়ের ঘোষণা দিয়েছেন। আগামী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে এসব শেয়ার বিক্রি করবেন কোম্পানিটি। ঢাকা স্টক একচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কোম্পানিটির এমডি ও পরিচালক/উদ্দোক্তা আক্তার হোসেন বাবুল ১৫ লাখ ৫০ হাজার, লিপি সুলতানা করিম ১ লাখ ৭৫ হাজার, ইমতিয়াজ আলী ২ লাখ ৭৯ হাজার ও রেজাউল করিম ১৫ লাখ ৫০ হাজার শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে। এসব শেয়ার কোম্পানির ঘোষিত বোনাস শেয়ার।

তারা এই ঘোষণার পর ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে উল্লেখিত পরিমাণ শেয়ার বিক্রয় করবেন বলে কোম্পানিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমআর

মার্জিনধারীদের তথ্য চায় সাইফ পাওয়ার

SAIF powerস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সেবা ও আবাসন খাতের কোম্পানি সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেড লভ্যাংশ বিতরণের জন্য ব্রোকারেজ হাউজের কাছ থেকে মার্জিন ঋণধারীদের তালিকা চেয়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কোম্পানিটি ব্রোকারেজ হাউজগুলোর কাছ থেকে মার্জিন ঋনধারীদের নাম, বিও নম্বর, ইটিআইএনসহ বিস্তারিত তথ্য চেয়েছে।

ব্রোকারহাউজ থেকে ঋণ নিয়ে (মার্জিন) শেয়ার কিনেছেন এমন বিনিয়োগকারীদের তালিকা চায় কোম্পানিটি। আগামী ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে এই তালিকা দিতে বলা হয়েছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/বিএ

রবিবার ৬টি কোম্পানির লেনদেন বন্ধ

trade-suspended-shaস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারের তালিকাভুক্ত ৬টি কোম্পানির লেনদেন রেকর্ড ডেটের কারণে রবিবার বন্ধ থাকবে।(ডিএসই) সূত্রে এই তথ্য জানা যায়।

কোম্পানিগুলো হচ্ছে – পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অফ বাংলাদেশ লিমিটেড, ওরিয়ন ফার্মা, পদ্মা লাইফ, এসিআই ফরমুলেশন লিমিটেড, এসিআই লিমিটেড ও ফার্মা এইডস।

সূত্রটি জানায়, এর আগে কোম্পানিগুলোর শেয়ারের লেনদেন স্পট মার্কেটে এবং ব্লক/অডলটে শুরু করেছিল যা রবিবারে সম্পন্ন হবে । আগামী ৪ ডিসেম্বর থেকে কোম্পানিগুলো আবার স্বাভাবিক লেনদেন শুরু করবে শেয়ারবাজার।
স্টকমার্কেটবিডি.কম/এসএম

স্পট মার্কেটে যাচ্ছে ৩ কোম্পানি

spotস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত তিন কোম্পানির শেয়ার রেকর্ড ডেটের আগে আগামী ৪ ডিসেম্বর, রোববার থেকে স্পট মার্কেটে লেনদেন হবে। চলবে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

কোম্পানিগুলো হচ্ছে- মোজাফফর হোসেন স্পিনিং মিলস, ইস্টার্ন কেবলস ও স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড।ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কোম্পানিগুলোর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ৬ ডিসেম্বর। রেকর্ড ডেটের দিন কোম্পানিগুলোর শেয়ার লেনদেন বন্ধ থাকবে। এর অংশ হিসেবেই স্পট মার্কটে কোম্পানিগুলোর শেয়ার লেনদেন হবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এসএম