৬ কোম্পানির এজিএম রবিবার

agmস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ৬টি কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আজ রবিবার অনুষ্ঠিত হবে।

কোম্পানি গুলো হচ্ছে- সাইফ পাওয়ারটেক, ডরিন পাওয়ার, নর্দান জুট, আলহাজ্ব টেক্সটাইল, মেট্রো স্পিনিং ও স্যালভো কেমিক্যাল। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
সাইফ পাওয়ার লিমিটেড :

এই কোম্পানিটি সকাল ১০ টায় রাজধানীর সেনানিবাসে অবস্থিত আর্মি গলফ ক্লাবে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) করবে।

২০১৬ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ৫ শতাংশ নগদ ও ২৭ শতাংশ স্টক লভ্যাংশের সুপারিশ করেছে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

ডোরিন পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড সিস্টেমস লিমিটেড :

এই কোম্পানিটি রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় ট্রাস্ট মিলানয়তন বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) করবে। ২০১৬ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ১০ শতাংশ নগদ ও ২০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশের সুপারিশ করেছে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

নর্দান জুট ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড :

এই কোম্পানিটি আগামীকাল সকাল ৯ টায় মহাখালী রোড রাওয়া কনভেনশন হলে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম)করবে। ২০১৬ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশের সুপারিশ করেছে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

আলহাজ্ব টেক্সটাইল লিমিটেড :

এই কোম্পানিটি আগামীকাল রবিবার বিকাল ৩ টায় ধানমন্ডি ক্লাবে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) করবে। ২০১৬ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ৫ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশের সুপারিশ করেছে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

মেট্রো স্পিনিং লিমিটেড :

এই কোম্পানিটি রবিবার সকাল সাড়ে ৯ টায় ম্যকসন গ্রুপের কনফারেন্স হলে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম)করবে। ২০১৬ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য নো ডেভিডেন্ট স্টক লভ্যাংশের সুপারিশ করেছে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

স্যালভো কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড :

এই কোম্পানিটি আগামীকাল সকাল ১০ টায় এশিয়া হোটেল এন্ড রিসোর্টসে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) করবে। ২০১৬ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশের সুপারিশ করেছে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

সাইফ পাওয়ারের এজিএম আজ

saifস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সেবা ও আবাসন খাতের কোম্পানি সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেডের বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আজ রবিবার অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিন সকাল ১০টায় রাজধানীর সেনানিবাসে অবস্থিত আর্মি গলফ ক্লাবে এই সভাটি হবে।

২০১৬ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ৫ শতাংশ নগদ ও ২৭ শতাংশ স্টক লভ্যাংশের সুপারিশ করেছে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ।

এজিএমের রেকর্ড ডেট ছিল ১৬ নভেম্বর।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

সাপ্তাহিক রিটার্নে দর বেড়েছে ৮ ও কমেছে ১২ খাতে

DSE LOGOস্টকমার্কেট ডেস্ক :

গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দর (রিটার্ন) বেড়েছে ৮ খাতে । অপরদিকে কমেছে ১২ খাতে।

লংকাবাংলা সিকিউরিটিজ লিমিটেড সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত সপ্তাহে দর বেড়েছে ৮ খাতে। সবচেয়ে বেশি দর বেড়েছে সিমেন্ট খাতে। এই খাতে ৮ দশমিক ৪৫ শতাংশ দর বেড়েছে। এরপরে সিরামিক খাতে ৩ দশমিক ৪০ শতাংশ, প্রকৌশল খাতে ১ দশমিক ৭২ শতাংশ, পাট খাতে দশমিক ৩১ শতাংশ, আর্থিক খাতে ১ দশমিক ৭০ শতাংশ, সেবা-আবাসন খাতে ৩ দশমিক ৮৩ শতাংশ ও ভ্রমণ-অবকাশ খাতে ২ দশমিক ৯৬ শতাংশ দর বেড়েছে।

সূত্র জানায়, অপরদিকে গত সপ্তাহে সবচেয়ে বেশি দর কমেছে আইটি খাতে। এই খাতে ৩ দশমিক ৮৮ শতাংশ দর কমেছে। এরপরে পেপার অ্যান্ড প্রিন্টিং খাতে ৩ দশমিক ২ শতাংশ দর কমেছে।

অন্যখাতগুলোর মধ্যে খাদ্য-আনুসঙ্গিক খাতে দশমিক ৮৬ শতাংশ, জ্বালানি-বিদ্যুৎ খাতে দশমিক ৮৪ শতাংশ, সাধারণ বিমা খাতে দশমিক ৬৪ শতাংশ, জীবন বিমা খাতে ২ দশমিক ৪৫ শতাংশ, বিবিধ খাতে দশমিক ৩৭ শতাংশ, মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে দশমিক ৫৫ শতাংশ, ওষুধ-রসায়ন খাতে দশমিক ৯৩ শতাংশ, ট্যানারি খাতে ১ দশমিক ৫২ শতাংশ ও বস্ত্র খাতে ১ দশমিক ১২ শতাংশ দর কমেছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এস

সাপ্তাহিক দর পতনের শীর্ষে মডার্ন ডাইং

modernস্টকমার্কেট ডেস্ক :

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহের লেনদেনে পতনের শীর্ষে উঠে এসেছে মডার্ন ডাইং অ্যান্ড স্ক্রিন প্রিন্টিং। এ সময়ে কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে ১০.৩৪ শতাংশ। ডিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

দর পতনের শীর্ষে অপর কোম্পানিগুলোর মধ্যে–বেক্সিমকো সিনথেটিক্সের ১০.২৬ শতাংশ, দুলামিয়া কটনের ৯.৭৬ শতাংশ, আমরা টেকনোলজির ৯.৫৪ শতাংশ, ঝিল বাংলা সুগার মিলসের ৮.৩১ শতাংশ, আরগন ডেনিমসের ৮.১৯ শতাংশ, ইভিন্স টেক্সটাইলসের ৮.০৪ শতাংশ, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের ৭.৬২ শতাংশ, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্সের ৭.৬১ শতাংশ ও তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজের ৬.৭৬ শতাংশ দর কমেছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএস

সপ্তাহের ব্যবধানে পিই রেশিও কমেছে ৪.৯৭%‌‌

PEস্টকমার্কেট ডেস্ক :

গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সার্বিক মূল্য আয় অনুপাত (পিই রেশিও) কমেছে। আগের সপ্তাহের চেয়ে পিই রেশিও কমেছে দশমিক ৭৩ পয়েন্ট বা ৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইতে পিই রেশিও অবস্থান করছে ১৩ দশমিক ৯৭ পয়েন্টে। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইর পিই রেশিও ছিল ১৪ দশমিক ৭০ পয়েন্ট।

সপ্তাহ শেষে খাতভিত্তিক ট্রেইলিং পিই রেশিও বিশ্লেষণে দেখা যায়, ব্যাংক খাতের পিই রেশিও অবস্থান করছে ৭.৯ পয়েন্টে, সিমেন্ট খাতের ৩০.৩ পয়েন্টে, সিরামিক খাতের ২১.৪ পয়েন্টে, প্রকৌশল খাতের ২০.৪ পয়েন্টে, খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক খাতের ২৮.৩ পয়েন্টে, জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে ১২.৬ পয়েন্টে, সাধারণ বিমা খাতে ১৩ পয়েন্টে, তথ্য ও প্রযুক্তি খাতে ২৭.৬ পয়েন্টে।

এছাড়া পাট খাতের পিই রেশিও মাইনাস ১৩.৫ পয়েন্টে, বিবিধ খাতের ২৮.৩ পয়েন্টে, এনবিএফআই খাতে ২১.৫ পয়েন্ট, কাগজ খাতের মাইনাস ১০৬.৭ পয়েন্টে, ওষুধ ও রসায়ন খাতের ১৭.৭ পয়েন্টে, সেবা ও আবাসন খাতের ২৩.২ পয়েন্টে, চামড়া খাতের ২৩.৮ পয়েন্টে, টেলিযোগাযোগ খাতে ১৮.১ পয়েন্টে, বস্ত্র খাতের ১৭.৬ পয়েন্টে এবং ভ্রমণ ও অবকাশ খাতের ২১.৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএস

সাপ্তাহিক দর বাড়ার শীর্ষে বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমস

BBSস্টকমার্কেট ডেস্ক :

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহের দর বাড়ার শীর্ষে উঠে এসেছে বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমস। এ সময় কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে ২২.৮০ শতাংশ। ডিএসই’র ওয়েবসাইট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হওয়া কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের ক্লোজিং প্রাইস বিবেচনায় কোম্পানির এ দর বেড়েছে।

সাপ্তাহিক দর বাড়ার শীর্ষে  অপর কোম্পানিগুলোর মধ্যে যথাক্রমে- গোল্ডেন হার্ভেস্ট এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজের ১৫.২২ শতাংশ, লাফার্জ সুরমা সিমেন্টের ১৪.১৪ শতাংশ, আরএসআরএম স্টিলের ১২.৮০ শতাংশ, লংকা বাংলা ফাইন্যান্সের ১১.৮১ শতাংশ, ইসলামিক ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টের ১০.৪৯ শতাংশ, ইউনিয়ন ক্যাপিটালের ১০.২০ শতাংশ, জেএমআই সিরিঞ্জের ৯.৩৬ শতাংশ, ইস্টার্ন লুব্রিকেন্টসের ৯.২৯ শতাংশ ও ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্সের ৯.২৫ শতাংশ দর বেড়েছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএস

প্যাসিফিক ডেনিমসের আবেদন জমা আর দুই দিন

pacific_coverনিজস্ব প্রতিবেদক :

সদ্য অনুমোদন পাওয়া কোম্পানি প্যাসিফিক ডেনিম লিমিটেডের প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) আবেদন জমা দেওয়া যাবে আর দুই কার্য দিবস। রবিবার ও সোমবার ব্রোকার হাউজ ও মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোতে বিনিয়োগকারীরা এ আবেদন করতে পারবেন। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

গত ১১ ডিসেম্বর থেকে আইপিও আবেদন গ্রহণ শুরু হয়। পূর্ব ঘোষণানুযায়ী ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই আবেদন করতে পারবেন আগ্রহী দেশি ও বিদেশি বিনিয়োগকারীরা।

এর আগে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন-বিএসইসি ৫৮২তম সভায় আইপিও’র মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহের জন্য প্রতিষ্ঠানটিকে অনুমোদন দেয়। কোম্পানটি এই অর্থ দিয়ে ব্যবসা সমপ্রসারণ, যন্ত্রপাতি ক্রয়, অবকাঠামো উন্নয়ন, ঋণ পরিশোধ ও আইপিও খাতে ব্যয় করবে। কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনা করবে এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড।

প্যাসিফিক ডেনিমস শেয়ারবাজারে সাত কোটি ৫০ লাখ সাধারণ শেয়ার ছেড়ে ৭৫ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। প্রতিটি শেয়ার অভিহিত মূল্য ১০ টাকা করে ৭ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে এ টাকা সংগ্রহ করা হবে।

শতভাগ রপ্তানিকারক প্যাসিফিক সর্বশেষ ২০১৫ সালে ১৬৮ কোটি ২৫ লাখ টাকার বিক্রয় করে। এক্ষেত্রে কোম্পানিটি করপরবর্তী প্রায় ১০ কোটি টাকা নীট মুনাফা বা শেয়ারপ্রতি ২.৬৩ টাকা আয় করে। এ সময় কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নীট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো হয় ২ টাকা। ৩৮ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধনের কোম্পানিটিতে ২০১৫ সালের ৩১ ডিসেম্বরে শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাড়িয়েছে ২৬.৪৩ টাকায়।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

সিএনএ টেক্সটাইলের বোর্ড সভা বিকালে

cnaস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বস্ত্র খাতের কোম্পানি সিএনএ টেক্সটাইল লিমিটেডের বোর্ড সভা আহবান করা হয়েছে। সম্প্রতি ডিএসই’র ওয়েবসাইটে এ তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (লিস্টিং) রেজুলেশন ২০১৫ এর ১৬(১) ধারা অনুযায়ী, এই বোর্ড সভায় ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সমাপ্ত প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

এই বোর্ড সভাটি আজ শনিবার বিকাল ৪ টায় নিজস্ব কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে।

বোর্ড সভায় কোম্পানিটি প্রথম প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদনটি শেয়ারহোল্ডারদের জানিয়ে দিবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এস

সামিট ইস্যুতে বিএসইসি’র নিকট ব্যাখ্যা দিল ডিএসই-সিএসই

summitনিজস্ব প্রতিবেদক :

গ্রুপের অন্য তিন কোম্পানির সঙ্গে সামিট পাওয়ারের একীভূতকরণে অনিয়ম বিষয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নিকট শোকজের ব্যাখ্যা দিয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) কর্তৃপক্ষ। ফলে পূর্বনির্ধারিত এই শুনানীতে স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এবং প্রধান রেগুলেটরি কর্মকর্তারা (সিআরও) অংশ নিয়েছেন। বিএসইসি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, একীভূতকরণের ক্ষেত্রে অনিয়মের দায়ে গত মাসে স্টক এক্সচেঞ্জ বোর্ডকে শোকজ করেছিল বিএসইসি। ১৫ ডিসেম্বর বোর্ড সদস্যদের সশরীরে হাজির হয়ে শুনানিতে অংশ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। দেশের শেয়ারবাজারে ইতিহাসে এ ধরনের ঘটনা এই প্রথম। কিন্তু বোর্ডের পরিবর্তে বৃহস্পতিবার দুই স্টক এক্সচেঞ্জের এমডি, সিআরও এবং সামিট প্রতিনিধিরা আলাদা আলাদাভাবে বৈঠক করেন। বৈঠকে কোনো পক্ষ থেকে তেমন কোনো প্রশ্ন করেনি বিএসইসি। লিখিত জবাব দিয়েই তারা চলে এসেছেন।

এর আগে বিএসইসির পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সামিট পাওয়ার একীভূতকরণ নিয়ে স্টক এক্সচেঞ্জের পদক্ষেপ সিকিউরিটিজ আইনের পরিপন্থী। এতে বিনিয়োগকারীরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। বিষয়টি নিয়ে স্টক এক্সচেঞ্জ পরিচালনা পর্ষদের সদস্য, স্টক এক্সচেঞ্জের চিফ রেগুলেটরি অফিসার এবং লিস্টিং বিভাগের প্রধানকে আগামী ১৫ ডিসেম্বর সশরীরে এসে শুনানিতে অংশ নিতে হবে। একই সঙ্গে আইন লঙ্ঘনের ব্যাপারে লিখিতভাবে ব্যাখ্যা দিতে হবে।

এদিকে আশির দশক থেকে শেয়ার ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত এমন কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নিয়ন্ত্রক সংস্থা প্রায়ই স্টক এক্সচেঞ্জ কর্মকর্তাদের শোকজ কিংবা শুনানিতে ডেকেছে। দোষী কর্মকর্তাদের শাস্তিও দিয়েছে বিএসইসি। কিন্তু পুরো পর্ষদ বা বোর্ডকে শুনানিতে ডাকার ঘটনা এটিই প্রথম। তাদের কথার সত্যতা পাওয়া যায় বিএসইসিতে।

একীভূতকরণ ইস্যুকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট জটিলতায় উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে ২৮ আগস্ট থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য লেনদেন বন্ধ রাখে ডিএসই ও সিএসই। একই সঙ্গে বিএসইসি ও উভয় স্টক এক্সচেঞ্জ গঠন করে আলাদা তদন্ত কমিটি। কোম্পানিটি একীভূতকরণের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য বিধিবিধান সঠিকভাবে অনুসরণ করেনি বলে অভিযোগ ছিল বিএসইসির।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

এমআই সিমেন্ট গ্রাহকদের কম সুদে ঋণ দিবে আইপিডিসি

home-loanস্টকমার্কেট ডেস্ক :

গৃহঋণ বিতরণে ক্রাউন ব্র্যান্ডের এমআই সিমেন্টের সঙ্গে জোট বেঁধেছে আর্থিক খাতের কোম্পানি ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রমোশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি বা আইপিডিসি। গত বৃহস্পতিবার ঢাকার গুলশানের একটি হোটেলে দুই কোম্পানির মধ্যে এ-সংক্রান্ত চুক্তি সই হয়েছে।

এ চুক্তির আওতায় ক্রাউন সিমেন্টের গ্রাহকেরা বাড়ি নির্মাণে আইপিডিসি থেকে কম সুদে ঋণ সুবিধা নিতে পারবেন। একইভাবে আইপিডিসির ঋণগ্রহীতা বাড়ি তৈরিতে ক্রাউন সিমেন্ট ব্যবহার করলে তাতেও বিশেষ ছাড় পাবেন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে জানানো হয়, মূলত ঢাকা, চট্টগ্রামের বাইরে গৃহঋণ সুবিধা পৌঁছে দিতে ক্রাউন সিমেন্টের সঙ্গে জোট বেঁধেছে আইপিডিসি। এর ফলে গ্রামীণ অর্থনীতিতে বাড়তি গতি সঞ্চার হবে, যা জাতীয় অর্থনীতির ওপরও ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

অনুষ্ঠানে এমআই সিমেন্টের জাহাঙ্গীর আলম বলেন, টেকসই অর্থনীতির স্বার্থে সরাসরি ভোক্তা পর্যায়ের বিপণনের প্রতি নজর দিতে হবে। দেশের ভোক্তাশ্রেণির একটি বৃহৎ অংশ গ্রামে বসবাস করে। তাই গ্রামীণ অর্থনীতিকে শক্তিশালী ও এগিয়ে নেওয়া সম্ভব হলে তাতে জাতীয় অর্থনীতিও এগিয়ে যাবে। চুক্তির আওতায় আইপিডিসির গ্রাহকেরা বাড়ি তৈরিতে ক্রাউন সিমেন্ট ব্যবহার করলে বিশেষ ছাড় পাবেন।

আইপিডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মমিনুল ইসলাম বলেন, গৃহনির্মাণ এখন আর কোনো বিলাসিতা না। এটি মধ্যবিত্তের স্বপ্ন ও প্রয়োজন। আর মধ্যবিত্তের এ প্রয়োজনকে সহায়তা করতে দেশজুড়ে ক্রাউন সিমেন্টের গ্রাহকদের সুলভে ও সহজে গৃহঋণ বিতরণ করা হবে। দেশব্যাপী ক্রাউন সিমেন্টের বিক্রয়কেন্দ্রে এ ঋণ সম্পর্কে তথ্য ও আবেদনের সুযোগ পাবেন গ্রাহকেরা।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ক্রাউনের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলমগীর কবির ও মোল্লা মোহাম্মদ মজনু, আইপিডিসির উপব্যবস্থাপনা পরিচালক এ এফ এম বারকাতউল্লাহ প্রমুখ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ