সিএসই’র নতুন চেয়ারম্যান ড. আবুল মোমেন

Abdul momenনিজস্ব প্রতিবেদক :

সাবেক রাষ্ট্রদূত ড. এ কে আবুল মোমেনকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) চেয়ারম্যান নির্বাচিত করা হয়েছে। সিএসইর এমডি এম. সাইফুর রহমান মজুমদার স্টকমার্কেটবিডিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সিএসই সূত্রে জানা যায়, আজ শনিবার পরিচালনা পর্ষদের সভায় তাকে সিএসইর নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে আবুল মোমেনকে নির্বাচিত করা হয়েছে। ব্যবস্থাপনা পৃথকীকরণের পর তিনি হবেন সিএসইর দ্বিতীয় চেয়ারম্যান।

একে আব্দুল মোমেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের ছোটভাই। তিনি জাতিসংঘের বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধির দায়িত্বে ছিলেন। এর আগে তাকে সিএসই’র পরিচালনা পর্ষদের সদস্য মনোনীত করা হয়।

ড. মোমেন ১৯৪৭ সালে সিলেটে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

তিনি সৌদী আরবে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ছিলেন। ড: মোমেন কে জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হন।

উল্লেখ্য, পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে শিশুকে উটের জকি হিসেবে ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। সৌদি আরবে কর্মরত অবস্খায় তিনি প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়েও সোচ্চার ছিলেন।

আরো উল্লেখ্য যে, মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি মুজিব নগর সরকারের সাথে কাজ করেন। এরপর স্বাধীন দেশেও নতুন সরকারের অধীনে যোগদান করেন। কিন্তু ১৯৮২ সালে তাকে বরখাস্ত করা হয় বিশেষ সামরিক অর্ডিন্যান্স (৯) জারীর মাধ্যমে। এরপর তিনি যুক্তরাষ্ট্রে ছিলেন। এসময় হাভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে উচ্চতর ডিগ্রী লাভ করেন। একইসাথে তিনি মানবাধিকার, গণতন্ত্র এবং সুশাসনের জন্যেও কাজ করে গেছেন।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) চেয়ারম্যান ড. আব্দুল মজিদের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

ভারতে ব্যবসা গুটিয়ে নিবে গ্রামীন ফোনের টেলিনর

telenorস্টকমার্কেট ডেস্ক :

প্রতিযোগিতার চাপে আর নানা দুর্বিপাকে ভারতী এয়ারটেলের কাছে ব‌্যবসা বিক্রি করে দিয়ে ভারত ছাড়ছে বাংলাদেশের শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি গ্রামীন ফোন লিমিটেডের নরওয়েভিত্তিক টেলিনর গ্রুপ।

ভারতের সবচেয়ে বড় টেলিকম অপারেটর ভারতী এয়ারটেল বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, এই হাতবদলের মধ‌্য দিয়ে ভারতের ছয়টি রাজ‌্যে টেলিনরের ব‌্যবসা অধিগ্রহণ করতে যাচ্ছে তারা।

টেলিনরের একজন মুখপাত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এই চুক্তির আওতায় ভারতী এয়ারটেল নগদ কোনো অর্থ দেবে না। লাইসেন্স ফি ও টাওয়ার নেটওয়ার্কের জন‌্য টেলিনরের যে দায়, তার দায়িত্ব তারা নেবে। পাশাপাশি টেলিনর ইন্ডিয়ার কর্মীদেরও আত্মীকরণ করা হবে।

ভারতের ইকোনমিক টাইমস জানিয়েছে, তরঙ্গ বাবদেই টেলিনরের দায়ের পরিমাণ এক হাজার ৬৫০ কোটি রুপির মত। এছাড়া রয়েছে টাওয়ার ইজারাসহ বিভিন্ন চুক্তিও রয়েছে।

টেলিনরের ৪ কোটি ৪০ লাখ গ্রাহক মিলিয়ে ভারতীয় এয়ারটেলের গ্রাহক সংখ‌্যা দাঁড়াবে ৩০ কোটি। পাশাপাশি এই চুক্তির ফলে ভারতীর ফোর জি নেটওয়ার্ক ও বাজারের আওতা বাড়বে, যা ভারতের টেলিকম খাতের আরেক বড় অপারেটর রিলায়েন্স জিও ইনফোকমের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আরও শক্ত ভিত্তি যোগাবে।

অন‌্যদিকে এই চুক্তির ফলে চীনের পর বিশ্বের সবচেয়ে বড় টেলিকম বাজার ভারতে টেলিনর অধ‌্যায়ের ইতি ঘটতে যাচ্ছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, ২০০৮ সালে ভারতে ব‌্যবসা শুরু করার পর থেকে গত নয় বছরে টেলিনরের লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২.৮৭ বিলিয়ন ডলার।

ইউনিনরের ২২টি লাইসেন্স টেলিনর কিনে নেওয়ার পর দুর্নীতির অভিযোগে ভারতীয় আদালত সেগুলো বাতিল করে দিলে বড় বিপদে পরে নরওয়েজীয় কোম্পানিটি। অবলোপনের মাধ‌্যমে তারা গতবছর ভারতে তাদের সম্পদের পরিমাণ ৭৬ কোটি ডলারে নামিয়ে আনে।

ভারতসহ বিশ্বের ১৩টি দেশে কার্যক্রম চালিয়ে আসা টেলিনরের গ্রাহক সংখ‌্যা ২১ কোটি ৪০ লাখ। এছাড়া টেলিনরের নিয়ন্ত্রণে থাকা ভিম্পেলকম কাজ করছে ১৪টি দেশে।

নরওয়ের টেলিনর বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনের ৫৫ দশমিক ৮ শতাংশ শেয়ারের মালিক। গ্রামীণফোনের গ্রাহক সংখ্যা বর্তমানে সাড়ে পাঁচ কোটির বেশি, যা দেশের মোট মোবাইল ফোন সেবাগ্রহীতার প্রায় অর্ধেক।

টেলিনরের গ্লোবাল সিইও সিগভে ব্রেক্কে বৃহস্পতিবার এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ভারত ছেড়ে যাওয়ার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ ছিল না। বার বার পর্যালোচনা করে আমাদের মনে হয়েছে, ভারতে টেলিনরের ব‌্যবসা টিকিয়ে রাখতে এককভাবে যে বিপুল অংকের বিনিয়োগ আমাদের করতে হত, তা থেকে গ্রহণযোগ‌্য পর্যায়ে লাভ পাওয়া সম্ভব নয়।”

ভরতী এয়ারটেল ও টেলিনর জানিয়েছে, আগামী এক বছরের মধ‌্যে তারা চুক্তির সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করতে পারবে বলে আশা করছে।

ভারতের অন্ধ্র প্রদেশ, বিহার ও ঝাড়খণ্ড, গুজরাট, মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশ (পূর্ব), উত্তরপ্রদেশ (পশ্চিম) ও আসামে সাতটি সার্কেলে টেলিনরের কার্যক্রম রয়েছে। এই সাতটি সার্কেল থেকেই এয়ারটেলের মোট আয়ের ৩৫ শতাংশ আসে।

টেলিনর কিনে নেওয়ার খবরে বৃহস্পতিবার শেয়ারবাজারে ভারতী এয়ারটেলের শেয়ারের দাম ৫২ সপ্তাহের মধ‌্যে সর্বোচ্চ অবস্থায় পৌঁছায়।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এস

শিপিং করপোরেশনের এজিএম ২২ মার্চ

bscস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আগামী ২২ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

লভ্যাংশ, নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন ও অন্যান্য এজেন্ডা অনুমোদনের জন্য ২২ মার্চ বেলা ১১টায় চট্টগ্রাম বন্দর এলাকায় অবস্থিত শহীদ মোহাম্মদ ফজলুর রহমান মুনসী অডিটোরিয়ামে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আয়োজন করবে বিএসসি। রেকর্ড ডেট ৬ মার্চ।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৬ হিসাব বছরের জন্য ১২ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ সুপারিশ করেছে বিএসসির পরিচালনা পর্ষদ। গেল হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৯৪ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ৩ টাকা ৯২ পয়সা। ৩০ জুন এর এনএভিপিএস দাঁড়ায় ৬১০ টাকা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এস

রিলায়েন্সের নগদ ও বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা

Reliance-Insuranceস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বিমা খাতের কোম্পানি প্রাইম ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের পরিচালনা বোর্ড শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১৫ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা শেষে এই লভ্যাংশ দিয়েছে বিমাটি।

এ সময় বিমাটির শেয়ার প্রতি আয় এসেছে ৪ টাকা ৫৩ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিমাটির শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫৫.৮১ টাকা।

আগামী ৩০ এপ্রিল বিমার বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ হয়েছে ১৬ মার্চ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এস

চলতি সপ্তাহে ৬ কোম্পানির লভ্যাংশ ঘোষণা

no-dividenedস্টকমার্কে ডেস্ক :

চলতি সপ্তাহে ছয় কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করবে ও লভ্যাংশ প্রদানের সিদ্ধান্ত নি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড :

কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ সভা আজ শনিবার দুপুর ১২টায় অনুষ্ঠিত হবে।

ব্যাংকিং খাতের কোম্পানিটি সর্বশেষ ২০১৫ সালে বিনিয়োগকারীদের ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল।

হাইডেলবার্গ সিমেন্ট লিমিটেড:

কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ সভা ২৮ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার বেলা ২টা ৪৫ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে।

সিমেন্ট খাতের কোম্পানিটি ২০১৫ সালে সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ৩০০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল, যা আগের বছরের তুলনায় ৮০ শতাংশ কম।

ব্রিটিশ-আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ কোম্পানি লিমিটেড :

কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদের সভা আগামীকাল রবিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় অনুষ্ঠিত হবে।

খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাতের কোম্পানিটি ১২০১৫ সালে সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ৫৫০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল, যা আগের বছরের সমান ছিল।

লিন্ডে বাংলাদেশ লিমিটেড :

কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ সভা মঙ্গলবার বেলা ৩টা ৩০ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের কোম্পানিটি ২০১৫ সালের সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য বিনিয়োগকারীদের ৩১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল, যা আগের বছরের সমান।

গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লাইন বাংলাদেশ লিমিটেড :

কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ সভা ২ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টা ৩০ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে।

ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানিটি ২০১৫ সালে সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ৫৫০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল, যা আগের বছরের তুলনায় ৭০ শতাংশ কম।

আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লিমিটেড :

পরিচালনা পর্ষদ সভা ২ মার্চ বৃহস্পতিবার বেলা ২টা ৩৫ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে।

ব্যাংকিং খাতের কোম্পানিটি ২০১১ সাল থেকে কোনো লভ্যাংশ দেয়নি। সর্বশেষ ২০১৫ সালে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান ছিল ২১ পয়সায় এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্যে দায় ছিল ১৪ টাকা ৭০ পয়সা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এফ

সপ্তাহজুড়ে নয় কোম্পানি শেয়ারহোল্ডারদের লভ্যাংশ দিল

dividendনিজস্ব প্রতিবেদক :

গত সপ্তাহজুড়ে নয় কোম্পানি লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড : কোম্পানিটি ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৬ সমাপ্ত বছরের জন্য ২০ শতাংশ শেয়ার লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এ সময় কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে দুই টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৩২ পয়সা। এটি আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে এক টাকা ৫৯ পয়সা ও ১৬ টাকা ৩৩ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ২ মে সকাল ৯টায় বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১৩ মার্চ। এজিএমের স্থান পরে জানানো হবে বলে কোম্পানিটি জানিয়েছে।

সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত হিসাববছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে কোম্পানিটি ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এ সময় কোম্পানির ইপিএস হয়েছে তিন টাকা ১০ পয়সা ও এনএভি ১৯ টাকা ২২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে যা ছিল যথাক্রমে দুই টাকা ৭৭ পয়সা ও ১৮ টাকা ৪২ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩০ মার্চ এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৪ মার্চ। এজিএমের সময় ও স্থান পরে জানানো হবে।

আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য কোম্পানিটি ৩০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এ সময় ইপিএস হয়েছে সাত টাকা আট পয়সা এবং এনএভি ৩৫ টাকা ৫৬ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে পাঁচ টাকা ৮১ পয়সা ও ৩০ টাকা ৯৭ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩০ মার্চ সকাল ১০টায় র‌্যাডিসন ব্ল– ঢাকা ওয়াটার গার্ডেন হোটেল, বিমানবন্দর সড়ক, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট, ঢাকায় এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৪ মার্চ।

প্রাইম ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত হিসাববছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য কোনো লভ্যাংশ ঘোষণা দেয়নি কোম্পানিটি। ওই বছর শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে তিন টাকা ৪৮ পয়সা এবং এনএভি হয়েছে ১০ টাকা ২১ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে এক টাকা ৫৩ পয়সা ও ১৩ টাকা ৬৯ পয়সা। আগামী ৩০ মার্চ সকাল সাড়ে ১০টায় পিএসসি কনভেনশন হল, পুলিশ স্টাফ কলেজ, মিরপুর-১৪, ঢাকায় এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৪ মার্চ।

প্রাইম ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ১৩ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এ সময় ইপিএস হয়েছে এক টাকা ৮২ পয়সা এবং এনএভি ১৬ টাকা ৩৯ পয়সা। এটি আগের বছর একই সময়ে ছিল যথাক্রমে দুই টাকা ১১ পয়সা ও ১৫ টাকা ৮৩ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩০ মার্চ এজিএম সকাল ১১টায় বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (এমআইএএম), ৬৩ নিউ ইস্কাটন, ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৪ মার্চ।

আরএন স্পিনিং মিলস লিমিটেড: ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত ১৮ মাসের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ২০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। তবে কোম্পানিটি ২০১২, ২০১৩ ও ২০১৪ সালের জন্য কোনো লভ্যাংশ ঘোষণা করেনি। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩০ মার্চ সকাল সাড়ে ১০টায় শালবন মাল্টিপারপাস হল, কুমিল্লায় বিজিবিতে এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৫ মার্চ। ওইদিন কোম্পানিটির গত চার বছরের এজিএম ১৫ মিনিটের বিরতি দিয়ে পর পর অনুষ্ঠিত হবে।

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত হিসাববছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে কোম্পানিটি ৩০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

এ সময় কোম্পানির ইপিএস হয়েছে আট টাকা ৮১ পয়সা ও এনএভি ৮৮ টাকা ৩০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে যা ছিল যথাক্রমে ১৫ টাকা ১০ পয়সা ও ৮৩ টাকা ৭৭ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩০ মার্চ সকাল ১০টায়, কনভেনশন হল, সেনামালঞ্চ, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট, ঢাকায় এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৪ মার্চ।

ইউনাইটেড ফাইন্যান্স লিমিটেড :

কোম্পানিটির পরিচালনা বোর্ড শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ৫ শতাংশ বোনাস ও ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা শেষে এই লভ্যাংশ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এ সময় প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার প্রতি আয় এসেছে ১ টাকা ৮৪ পয়সা। আর ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৭.২৯ টাকা।

আগামী ২৭ এপ্রিল প্রতিষ্ঠানটির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ হয়েছে ১৬ মার্চ।

রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স :

এই ইন্স্যুরেন্সের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ২৫ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৫৩ পয়সা। এ সময়ে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫৫ টাকা।

আগামী ৩০ এপ্রিল কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১৪ মার্চ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এফ

৯ দিনে ডিএসই’র বাজার মূলধন বেড়েছে ৪,৯২১ কোটি টাকা

index upনিজস্ব প্রতিবেদক :

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত ৯ কার্যদিবসে বাজার মূলধন বেড়েছে ৪,৯২১ কোটি টাকা। সর্বশেষ সপ্তাহে গত সপ্তাহের মতো বেড়েছে সব ধরণের মূল্য সূচক। ডিএসই তথ্য এসব জানা যায়।

সূত্র থেকে জানা যায়, গত ১২ ফেব্রুয়ারি ডিএসইতে বাজার মূলধনের পরিমান ছিল ৩ লাখ ৭১ হাজার ৩০১ কোটি টাকা। যা সর্বশেষ কার্যদিবসে ২৩ ফেব্রুয়ারি দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৭৬ হাজার ২২২ কোটি টাকার বেশি। এ হিসাবে ডিএসইতে গত ৯ দিনে মূলধন বেড়েছে প্রায় ৪,৯২১ কোটি টাকা।

সর্বশেষ সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩৪.৬৬ পয়েন্ট বা ০.৬২ শতাংশ বেড়েছে। আর ডিএসইএক্স শরিয়াহ সূচক বেড়েছে ৩.৩৩ পয়েন্ট বা ০.২৫ শতাংশ ও ডিএসই ৩০ সূচক বেড়েছে ৮.৫২ পয়েন্ট বা ০.৪২ শতাংশ।

এর আগের সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৭৮ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৪২ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২১ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ৬৫ শতাংশ এবং ডিএসই ৩০ সূচক ২৫ পয়েন্ট বা ১ দশমিক ২৬ শতাংশ বেড়েছে।

সর্বশেষ সপ্তাহে লেনদেন হওয়া ৪ কার্যদিবসে ডিএসইতে গড় লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২৯৩ কোটি ২৮ লাখ ৬৫ হাজার ৪৩৯ টাকা। আর সপ্তাহজুড়ে ডিএসইর গড় লেনদেন ২০ শতাংশ বাড়লেও মোট লেনদেন কমেছে ৩.৩১ শতাংশ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এফ