ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠনে খসড়া বিধিমালা অনুমোদন

bsecনিজস্ব প্রতিবেদক :

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (ক্লিয়ারিং, সেটলমেন্ট ও সেন্ট্রাল কাউন্টার পার্টি) বিধিমালা, ২০১৭- এর খসড়া কিছু সংশোধনীসহ অনুমোদন দিয়েছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা। আজ বুধবার (১৫ মার্চ) অনুষ্ঠিত ৬০০তম কমিশন সভায় এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিএসইসির নিবার্হী পরিচালক এম. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

জানা যায়, বিধিমালাটি জনমত যাচাইয়ের জন্য দৈনিক পত্রিকা এবং কমিশনের ওয়েবসাইটে শিগগিরই প্রকাশ করা হবে।

ক্লিয়ারিং ও সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠনের উদ্দেশ্যে ২০১৫ সালের ৬ অক্টোবর ৫৫৫তম কমিশন সভায় এ-সংক্রান্ত খসড়া আইন অনুমোদন দেয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা। পরবর্তীতে খসড়া আইনটির বিষয়ে শেয়ারবাজার ও আর্থিক খাতসংশ্লিষ্টদের মতামতও নিয়েছে বিএসইসি।

এটি চালু হলে মিউচুয়াল ফান্ড ও বন্ড লেনদেনের পাশাপাশি শেয়ারবাজারে নতুন পণ্য যেমন ডেরিভেটিভস, কমোডিটি এক্সচেঞ্জ চালু করা সম্ভব হবে। এটি গঠিত হলে একদিনের মধ্যেই লেনদেন নিষ্পত্তি করা সম্ভব হবে। রেকর্ড ডেটে শেয়ারের লেনদেন বন্ধ থাকবে না, থাকবে না কোনো স্পট মার্কেটে লেনদেনের নিয়ম। আর লেনদেন সেটলমেন্টও হবে একদিনের মধ্যেই।

অগ্রগতি তুলে ধরে বিএসইসি জানায়, বিএসইসির প্রতিনিধি দল জার্মানি ও স্পেন ঘুরে এ বিষয়ে বিস্তারিত অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে। এরই মধ্যে আইনটির খসড়া প্রকাশ করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের মতামতের আলোকে চূড়ান্ত আইন প্রণয়নের কাজও চলছে বলে বৈঠকে জানানো হয়।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ/বিএ

আইএফআইসির ১:১ হারে রাইট অনুমোদন

ific-smbdনিজস্ব প্রতিবেদক :

শেয়ারবাজার তালিকাভুক্ত ব্যাংকিং খাতের কোম্পানি আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড ১:১ হারে রাইট শেয়ার ছাড়ার অনুমোদন পেয়েছে । বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

বুধবার (১৫ মার্চ) ৬০০তম সভায় এ কোম্পানির রাইট অনুমোদন করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বিএসইসির নিবার্হী পরিচালক ও মুখপাত্র এম. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আইএফআইসি ব্যাংক ১টি শেয়ারের বিপরীতে ১টি রাইট শেয়ার ছাড়তে পারবে। আর প্রতিটি রাইট শেয়ারের অভিহিত মূল্য হবে ১০ টাকা। এর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৫৬ কোটি ৩৮ লাখ ২১ হাজার ৯০৭টি সাধারণ শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে ৫৬৩ কোটি ৮২ লাখ ১৯ হাজার ৭০ টাকা পুজিবাজার থেকে উত্তোলন করবে। এর মাধ্যমে কোম্পানিটি মূলধনের পর্যাপ্ততা এবং ব্যাসেল ৩-র আলোকে মূলধন ভিত্তি শক্তিশালী করবে।

৩০ জুন, ২০১৬ তারিখে অর্থবার্ষিকী আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় ১ টাকা ৬১ পয়সা। আর এনএভি ২৪ টাকা ৩৮ পয়সা।

এই রাইট ইস্যুর জন্য ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ/বিএ

২০ কোটি টাকা ফান্ডের প্রসপেক্টাস অনুমোদন

bsecনিজস্ব প্রতিবেদক :

বে-মেয়াদি ক্রিডেন্স ফার্স্ট গ্রোথ ফান্ডের খসড়া প্রসপেক্টাস অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বুধবার (১৫ মার্চ) অনুষ্ঠিত ৬০০তম কমিশন সভায় এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিএসইসির নিবার্হী পরিচালক এম. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২০ কোটি টাকা। এখানে উদ্যোক্তার অংশ ২ কোটি টাকা। সব বিনিয়োগকারীর জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে ১৮ কোটি টাকা। যা ইউনিট বিক্রয়ের মাধ্যমে উত্তোলন করা হবে। ফান্ডটির অভিহিত মূল্য হবে ১০ টাকা এবং ফান্ডটির নিয়মিত বিনিয়োগ পরিকল্পনার আওতায় বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ইউনিট বিক্রি করতে পারবে।

ফান্ডের উদ্যোক্তা ও ব্যবস্থাপক হিসাবে রয়েছে ক্রিডেন্স অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড। ফান্ডটির ট্রাস্টি ও কাস্টডিয়ান হলো ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ/বিএ

আইপিডিসি ফাইন্যান্সের ৩০০ কোটি টাকা বন্ড অনুমোদন

bsecনিজস্ব প্রতিবেদক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত নন ব্যাংকিং আর্থিক খাতের কোম্পানি আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড ৩০০ কোটি টাকা বন্ডের অনুমোদন পেয়েছে । বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

বুধবার (১৫ মার্চ) অনুষ্ঠিত ৬০০তম কমিশন সভায় এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিএসইসির নিবার্হী পরিচালক এম. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ফুল রিডেম্পশন বন্ডটিতে বানিজ্যিক ব্যাংক, নন ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বীমা কোম্পানি, কর্পোরেট হাউজ, সম্পদ ব্যবস্থাপনা কোম্পানি, অল্টানেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড এবং উচ্চ সম্পদধারী ব্যক্তিগনের মধ্যে শুধুমাত্র প্রাইভেট প্লেসমেন্ট এর মাধ্যমে এ বন্ড ইস্যু করা হবে। যার প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য হবে ১০ লাখ টাকা। এ বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে অর্থ উত্তোলন করে ‘হাই কস্ট ডিপোজিট রিপ্লেসমেন্ট এন্ড ল্যান্ড ফর লংগার ট্রার্মস’ খাতে ব্যয় করবে প্রতিষ্ঠানটি।

এর ম্যানডেটেড লিড এ্যারেঞ্জার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে সিটি ব্যাংক লিমিটেড এবং এর ট্রাস্টি হিসেবে কাজ করছে আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ/বিএ

সামিট পাওয়ারের একীভূতকরণ ইস্যুতে ডিএসই-সিএসইকে সতর্কপত্র

bsecনিজস্ব প্রতিবেদক :

সামিট গ্রুপের তিন কোম্পানির একীভূত এবং স্টক এক্সচেঞ্জ থেকে তালিকাচ্যুততে সিকিউরিটিজ আইন পরিপালন না হওয়ায় সামিট পাওয়ার, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের পর্ষদ ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সতর্ক করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। একই সাথে একীভূত ও তালিকাচ্যুত যথাযথ আইন পরিপালন না করে সম্পূর্ণ করার বিষয়টি অনুমোদন দেওয়ায় উভয় স্টক এক্সচেঞ্জর পরিচালনা পর্ষদকে ভবিষ্যতে অধিকতর সাবধানতা অবলম্বন করে কার্যক্রম পরিচালনা করার পরামর্শ দিয়েছে কমিশন।

বুধবার (১৫ মার্চ) অনুষ্ঠিত ৬০০তম কমিশন সভায় এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিএসইসির নিবার্হী পরিচালক এম. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সামিট পাওয়ারের সঙ্গে সামিট পূর্বাঞ্চল পাওয়ার, সামিট উত্তরাঞ্চল পাওয়ার এবং সামিট নারাণগঞ্জ পাওয়ার একীভূতের ক্ষেত্রে উচ্চ আদালতের রায় যথাযথ ভাবে পরিপালন হয়নি। যা উচ্চ আদালত ও কমিশনের নির্দেশে কোম্পানিটি একীভূত প্রক্রিয়া পরবর্তীতে আইন সম্মত ভাবে পরিপালন করেছে। তবে সিকিউরিটিজ আইন সময়মতো পরিপালন না করায় কমিশন সামিট পাওয়ারকে সতর্ক করেছে।

এদিকে সামিট পূর্বাঞ্চলকে তালিকাচ্যুত এবং সামিট পাওয়ারের শেয়ার অননুমোদিতভাবে বৃদ্ধি করায় কমিশন উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, চীফ রেগুলেটরি অফিসার, হেড অব লিস্টিং এবং হেড অব মার্কেট অপারেশনস-কে সতর্ক করেছে।

কারণ তারা সিকিউরিটিজ অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯ এর ধারা ৯(৫); ডিপজিটরি (ব্যবহারিক) প্রবিধানমালা, ২০০৩ এর প্রবিধান ৪৬(২) ও (৩); লিস্টিং রেগুলেশনের ধারা ৫১ ও ৫২ এবং ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন আইন, ২০১৩ এর ধারা ১৯ ভঙ্গ করেছেন।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ/বিএ

স্পট মার্কেটে যাচ্ছে সিঙ্গার বাংলাদেশ

singerস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত প্রকৌশল খাতের কোম্পানি সিঙ্গার বাংলাদেশের শেয়ার রেকর্ড ডেটের আগে আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে স্পট মার্কেটে লেনদেন হবে। যা চলবে রবিবার পর্যন্ত। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কোম্পানিটির রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২০ মার্চ। রেকর্ড ডেটের দিন কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন বন্ধ থাকবে।

এর অংশ হিসেবেই স্পট মার্কটে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/বিএ

বৃহস্পতিবার তিন কোম্পানির লেনদেন বন্ধ

Spot-Market-230x155স্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত তিন কোম্পানির লেনদেন রেকর্ড ডেটের কারণে আগামীকাল বৃহস্পতিবার বন্ধ থাকবে। বুধবার ডিএসই’র ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কোম্পানিগুলো হচ্ছে- রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, মার্কেন্টাইল ব্যাংক ও ইউনাইটেড ফাইন্যান্স লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, এর আগে কোম্পানিগুলোর শেয়ারের লেনদেন স্পট মার্কেটে এবং ব্লক/অডলটে শুরু করেছিল; যা আজকে বুধবার সম্পন্ন হবে। আগামী রবিবার থেকে কোম্পানিগুলো আবার স্বাভাবিক লেনদেন শুরু করবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/বিএ

ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠনে অর্থ মন্ত্রণালয়ের তাগিদ

minitry-smbdনিজস্ব প্রতিবেদক :

শেয়ারবাজারে ইকুইটির বাইরে নতুন প্রডাক্ট চালু ও লেনদেন সহজতর করতে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠনে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনকে তাগাদা দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

সচিবালয়ে সরকারের সঙ্গে বিএসইসির বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির অগ্রগতি নিয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ তাগিদ দেয় অর্থ মন্ত্রণালয়। ব্যাংক ও আর্থিক বিভাগের সচিব ইউনুসুর রহমানের সভাপতিত্বে বৈঠকে বিএসইসির পক্ষে কমিশনার হেলাল উদ্দিন নিজামীসহ কমিশনের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা অংশ নেন।

সেখানে বিএসইসির অর্গানোগ্রাম, বাজার সৃষ্টিকারী বিধিমালা, ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য ঘোষিত প্রণোদনা বাস্তবায়ন, সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন বিধিমালা ১৯৬৯-এর বাংলা সংস্করণ প্রকাশ, শেয়ারবাজার-সংক্রান্ত মামলার দ্রুত নিষ্পত্তির উদ্যোগ ও বুক বিল্ডিং পদ্ধতি আবারো সংশোধনের প্রয়োজনীয়তাসহ শেয়ারবাজার-সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিভাগ সূত্রে জানা যায়, বৈঠকে কোনো বিষয় চূড়ান্ত হয়নি। ক্লিয়ারিং অ্যান্ড সেটলমেন্ট কোম্পানি ও বিএসইসির অর্গানোগ্রামসহ অনেকগুলো বিষয়ে আলোচনায় হয়েছে। ২৫ মার্চ আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর সমন্বয় সভায় এসব বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, শেয়ারবাজারের মূল ইকুইটির বাইরে নতুন প্রডাক্ট চালু ও কমিশনের কার্যক্রম তুলে ধরে বিএসইসির প্রতিনিধি দল। এ সময় তারা ক্লিয়ারিং ও সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠনের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে জানান, প্রতিষ্ঠানটি চালু হলে মিউচুয়াল ফান্ড ও বন্ড লেনদেনের পাশাপাশি শেয়ারবাজারে নতুন পণ্য যেমন ডেরিভেটিভস, কমোডিটি এক্সচেঞ্জ চালু করা সম্ভব হবে। এটি গঠিত হলে একদিনের মধ্যেই লেনদেন নিষ্পত্তি করা সম্ভব হবে। রেকর্ড ডেটে শেয়ারের লেনদেন বন্ধ থাকবে না, থাকবে না কোনো স্পট মার্কেটে লেনদেনের নিয়ম। আর লেনদেন সেটলমেন্টও হবে একদিনের মধ্যেই।

অগ্রগতি তুলে ধরে বিএসইসি জানায়, বিএসইসির প্রতিনিধি দল জার্মানি ও স্পেন ঘুরে এ বিষয়ে বিস্তারিত অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে। এরই মধ্যে আইনটির খসড়া প্রকাশ করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের মতামতের আলোকে চূড়ান্ত আইন প্রণয়নের কাজও চলছে বলে বৈঠকে জানানো হয়।

প্রসঙ্গত, ক্লিয়ারিং ও সেটলমেন্ট কোম্পানি গঠনের উদ্দেশ্যে ২০১৫ সালের ৬ অক্টোবর ৫৫৫তম কমিশন সভায় এ-সংক্রান্ত খসড়া আইন অনুমোদন দেয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা। পরবর্তীতে খসড়া আইনটির বিষয়ে শেয়ারবাজার ও আর্থিক খাতসংশ্লিষ্টদের মতামতও নিয়েছে বিএসইসি।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

হাক্কানী পাল্পের ঋণমান ‘বিবিবি+’

hakkaniস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কাগজ ও প্রকাশনা খাতের কোম্পানি হাক্কানী পাল্প ও পেপার লিমিটেডের দীর্ঘমেয়াদি ঋণমান নির্ধারণ হয়েছে ‘বিবিবি+’। সম্প্রতি এই রেটিং প্রকাশ করেছে ক্রেডিট রেটিং ইনফরমেশন এন্ড সার্ভিস লিমিটেড (সিআরআইএসএল)। বুধবার ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

একই সময় কোম্পানিটির স্বল্পমেয়াদি ঋণমান এসেছে ‘এসটি-২’।

২০১৬ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত প্রতিবেদন এবং ২০১৬ সালের ৩০ ডিসেম্বরের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন ও হালনাগাদ অন্যান্য আর্থিক উপাত্তের ভিত্তিতে এ সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে সিআরআইএসএল।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/বিএ

  1. লংকাবাংলা ফাইন্যান্স
  2. বেক্সিমকো লিমিটেড
  3. ন্যাশনাল ব্যাংক
  4. রতনপুর স্টিল
  5. মার্কেন্টাইল ব্যাংক
  6. এনসিসি ব্যাংক
  7. ট্রাষ্ট ব্যাংক
  8. কাসেম ড্রাইসেল
  9. বেক্স ফার্মা
  10. ইসলামী ব্যাংক।