সেরা আর্থিক প্রতিবেদন পুরস্কার প্রাপ্ত ২৮ প্রতিষ্ঠানের বেশিরভাগই তালিকাভুক্ত

statmentsস্টকমার্কেট প্রতিবেদক :

ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশের (আইসিএবি) সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে বিভিন্ন খাতের ২৮ প্রতিষ্ঠান। ২০১৬ সালে প্রস্তুত করা নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য মোট ১৩টি ক্যাটাগরিতে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অধিকাংশই দেশের শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি।

আইসিএবি সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের সেরা আর্থিক প্রতিবেদন বাছাইয়ের জন্য সাবেক অর্থ সচিব এম মতিউল ইসলামকে প্রধান করে ছয় সদস্যবিশিষ্ট জুরি বোর্ড গঠন করা হয়। জুরি বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন— সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা অধ্যাপক ওয়াহিদউদ্দীন মাহমুদ ও রোকিয়া আফজাল রহমান, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী ও ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের সম্পাদক এএইচএম মোয়াজ্জেম হোসেন। জুরি বোর্ড বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের আর্থিক প্রতিবেদন যাচাই-বাছাই করে ১৩টি ক্যাটাগরিতে মোট ২৮ প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কারের জন্য বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করে। এ বছর প্রথমবারের মতো ‘ডাইভার্সিফাইড হোল্ডিংস’ ক্যাটাগরির প্রবর্তন করা হয়েছে।

দেশের ব্যাংকিং ক্যাটাগরিতে আইসিএবি সেরা আর্থিক প্রতিবেদন ২০১৬-এর প্রথম পুরস্কার পেয়েছে বেসরকারি খাতের ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড। যৌথভাবে দ্বিতীয় পুরস্কার পেয়েছে সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড ও ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড। আর প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড ব্যাংকিং ক্যাটাগরিতে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে। পাশাপাশি সরকারি ব্যাংকগুলোর মধ্যে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম পুরস্কার পেয়েছে জনতা ব্যাংক লিমিটেড।

ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক সেবা ক্যাটাগরিতে যৌথভাবে প্রথম পুরস্কার পেয়েছে লংকাবাংলা ফিন্যান্স লিমিটেড ও আইডিএলসি ফিন্যান্স লিমিটেড। আইপিডিসি ফিন্যান্স লিমিটেড দ্বিতীয় ও ইউনিয়ন ক্যাপিটাল লিমিটেড তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে।

ম্যানুফ্যাকচারিং ক্যাটাগরিতে এবার যৌথভাবে প্রথম পুরস্কার পেয়েছে আরএকে সিরামিকস (বাংলাদেশ) লিমিটেড ও ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ কোম্পানি লিমিটেড। তাছাড়া ওরিয়ন ফার্মা লিমিটেড দ্বিতীয় ও গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লাইন বাংলাদেশ লিমিটেড তৃতীয় সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে।
বীমা ক্যাটাগরিতে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম পুরস্কার পেয়েছে প্রাইম ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। তাছাড়া গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড দ্বিতীয় ও রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড তৃতীয় হয়েছে।

এনজিও ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছে সবচেয়ে বড় বেসরকারি সাহায্য সংস্থা ব্র্যাক। তাছাড়া সাজিদা ফাউন্ডেশন দ্বিতীয় ও উদ্দীপন তৃতীয় সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে।
যোগাযোগ তথ্যপ্রযুক্তি ক্যাটাগরিতে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম পুরস্কার পেয়েছে গ্রামীণফোন লিমিটেড।

পাবলিক সেক্টর এনটিটিজ ক্যাটাগরিতে দেশের সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)। তাছাড়া ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড (ইডকল) দ্বিতীয় ও বাংলাদেশ ইনফ্রাস্ট্রাকচার ফিন্যান্স ফান্ড লিমিটেড (বিআইএফএফএল) তৃতীয় সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের পুরস্কার পেয়েছে।

সেবা ক্যাটাগরিতে সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম হয়েছে ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টস লিমিটেড। কৃষি ক্যাটাগরিতে গোল্ডেন হারভেস্ট এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড সেরা আর্থিক প্রতিবেদনের জন্য প্রথম পুরস্কার পেয়েছে।

করপোরেট সুশাসনের জন্য সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড প্রথম পুরস্কার পেয়েছে। তাছাড়া এ ক্যাটাগরিতে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড দ্বিতীয় ও ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে।

ইন্টিগ্রেটেড রিপোর্টিং ক্যাটাগরিতে আইডিএলসি ফিন্যান্স লিমিটেড প্রথম পুরস্কার পেয়েছে। তাছাড়া এ ক্যাটাগরিতে গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড দ্বিতীয় ও ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে।

প্রথমবারের মতো দেয়া ডাইভার্সিফাইড হোল্ডিংস ক্যাটাগরিতে সার্টিফিকেট অব মেরিট পেয়েছে এসিআই লিমিটেড। বিভিন্ন খাতের মোট আট প্রতিষ্ঠান সার্টিফিকেট অব মেরিট পুরস্কার পেয়েছে।

গতকাল রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিদের কাছে পুরস্কার তুলে দেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল (সিএজি) মাসুদ আহমেদ ও ফিন্যান্সিয়াল রিপোর্টিং কাউন্সিলের (এফআরসি) চেয়ারম্যান সিকিউকে মুস্তাক আহমেদ। এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে আইসিএবি সভাপতি আদিব হোসেন খান ও রিভিউ কমিটি ফর পাবলিশড অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড রিপোর্টসের (আরসিপিএআর) চেয়ারম্যান পারভীন মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/মোদক.

খেলাপি ঋণ ২০ শতাংশ হলেও জিডিপিতে দেখানো হয় ১২

bibmস্টকমার্কেট প্রতিবেদক :

প্রকৃত খেলাপি ঋণ ২০ শতাংশ হলেও জিডিপিতে দেখানো হয় মাত্র ১২ শতাংশ। খেলাপি ঋণ বাড়ার প্রকৃত কারণ স্পষ্ট না করে অধিকাংশ ব্যাংক খেলাপি ঋণের তথ্য গোপন করছে।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) আয়োজিত দুই দিনব্যাপী বার্ষিক ব্যাংকিং সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেছেন বক্তারা।

রোববার (২৬ নভেম্বর) রাজধানীর মিরপুরে বিআইবিএম অডিটোরিয়ামে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

উদ্বোধনী বক্তৃতায় ফজলে কবির বলেন, এই সম্মেলনে যেসব পেপার উপস্থাপন করা হবে তার মাধ্যমে ব্যাংকিং খাতের বিভিন্ন বিষয় উঠে আসবে; যা আমাদের নীতিমালা তৈরিতে ভূমিকা রাখবে।

প্যানেল আলোচনায় ট্রাস্ট ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারুক মঈনউদ্দীন আহমেদ বলেন, অধিকাংশ ব্যাংক খেলাপি ঋণের তথ্য গোপন করে থাকে। জিডিপিতে খেলাপি ঋণ ১২ শতাংশ দেখানো হলেও প্রকৃত খেলাপি ঋণ ২০ শতাংশ।

সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, খেলাপি ঋণের উপযুক্ত কোনো কারণ স্পষ্ট নয়। কী কারণে খেলাপি ঋণ বাড়ছে তা তুলে আনতে হবে। ব্যাংকের পরিচালনা পর্যদ নাকি ব্যবস্থাপনা কমিটির কারণে খেলাপি ঋণ বাড়ছে সেটা দেখতে হবে।

বিআইবিএমের সুপারনিউমারারি অধ্যাপক মো. ইয়াসিন আলী বলেন, শরীয়া ভিক্তিক ব্যাংকগুলো সঠিকভাবে তাদের নিয়ম পালন করছে না। এসব ব্যাংকের জন্য একটি আইন প্রণয়নের সময় হয়ে গেছে। এছাড়া বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে ব্যাংকারদের চাকরির কোনো নিরাপত্তা নেই।

সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিআইবিএম’র মহাপরিচালক ড. তৌফিক আহমদ চৌধুরী। তিনি ব্যাংকিং খাতের ওপর বিভিন্ন সেশনে আলোচনার বিষয়বস্তুর রিভিউ পাঠ করেন।

স্বাগত বক্তব্য দেন বার্ষিক ব্যাংকিং সম্মেলন বাস্তবায়ন কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শাহ মো. আহসান হাবীব।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর ‘মাইক্রো ব্যাংকিং এনভায়রনমেন্ট’ শীর্ষক একটি অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলি রুবাইয়াতুল ইসলাম।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/মোদক.

হোটেল রেডিসনে রোড শো‌’ করবে লুব-রেফ

lub refস্টকমার্কেট প্রতিবেদক :

বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে শেয়ারবাজার থেকে টাকা উত্তোলনের লক্ষ্যে আগামী ৫ ডিসেম্বর রোড শো’র আয়োজন করেছে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের লুব-রেফ (বাংলাদেশ) লিমিটেড। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, ওই দিন সন্ধ্যা ৭টায় হোটেল রেডিসন ব্লুতে রোড শো অনুষ্ঠিত হবে। এতে শেয়ারবাজারের যোগ্য বিনিয়োগকারীদের (ইলিজিবল ইনভেস্টর) উপস্থিত থাকার আহবান জানানো হয়েছে।

কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছে এনআরবি ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড এবং রেজিষ্টার টু দি ইস্যু হিসেবে কাজ করছে বেটাওয়ান ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড।

রোড-শো অনুষ্ঠানে যোগ্য বিনিয়োগকারী হিসেবে মার্চেন্ট ব্যাংকার, পোর্টফোলিও ম্যানেজার, অ্যাসেট ম্যানেজার ও তাদের পরিচালিত মিউচুয়াল ফান্ড, স্টক ডিলার, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বীমা কোম্পানি, অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড ও ফান্ডের ম্যানেজার, অনুমোদিত পেনশন ও প্রভিডেন্ট ফান্ড, ইতিমধ্যে বিনিয়োগ করা বৈদেশিক বিনিয়োগকারী এবং কমিশন অনুমোদিত বিনিয়োগকারীরা উপস্থিত থাকবেন।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/

শাহজালাল ব্যাংক শেয়ারের দর বাড়ার তথ্য নেই

sahjalal-smbdস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের কোম্পানি শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের সাম্প্রতিক সময়ে শেয়ার দর বাড়ার পেছনে কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই বলে জানিয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে কোম্পানিটির পক্ষ থেকে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জকে (ডিএসই) এ কথা জানানো হয়েছে। রবিবার ডিএসই’র ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, গত ২ নভেম্বর শেয়ার দর ছিল ২৬.৯০ টাকা। গতকাল ২৬ নভেম্বর সর্বশেষ তা ৩৫ টাকার উপরে লেনদেন হয়েছে।

কোম্পানিটির শেয়ারের এ দর বাড়াকে অস্বাভাবিক বলে মনে করছে ডিএসই। তবে দর বাড়ার পেছনে মূল্য সংবেদনশীল কোন তথ্য কি তা জানতে চায় ডিএসই।

এ সময় শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি শেয়ারটির দর বৃদ্ধির পেছনে মূল্য সংবেদনশীল অপ্রকাশিত কোন তথ্য তাদের কাছে নেই।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/মোদক.

রেকিট বেনকাইজারের ২য় প্রান্তিক বোর্ড সভা ২৯ নভেম্বর

recitস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত প্রকৌশল খাতের কোম্পানি রেকিট বেনকাইজার লিমিটেডের দ্বিতীয় প্রান্তিকের বোর্ড সভা আগামী ২৯ নভেম্বর আহবান করা হয়েছে। রবিবার ডিএসই’র ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানা গেছে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (লিস্টিং) রেজুলেশন ২০১৫ এর ১৬(১) ধারা অনুযায়ী, এই বোর্ড সভায় কোম্পানিটির ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অনিরীক্ষিত এই আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

এদিন বেলা সোয়া ৪টায় রাজধানীতে অবস্থিত নিজস্ব অফিসে অনুষ্ঠিত এ সভায় বিমাটি তৃতীয় প্রান্তিকের ইপিএস ও ন্যাভসহ অন্যান্য আর্থিক তথ্য শেয়ারহোল্ডারদের জানিয়ে দেওয়া হবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএইচ

  1. এবি ব্যাংক
  2. শাহজালাল ব্যাংক
  3. প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল
  4. বিডি থাই
  5. সিটি ব্যাংক
  6. ন্যাশনাল টিউবস
  7. ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন
  8. ফাস ফাইন্যান্স
  9. ঢাকা ব্যাংক
  10. গোল্ডেন হার্ভেষ্ট।

ডিএসইতে ৭৯০ ও সিএসইতে ৩৩ কোটি টাকার লেনদেন

DSE_CSE-smbdস্টকমার্কেট প্রতিবেদক :

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দিনশেষে টাকার অংকে লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৭৯০ কোটি টাকা। এদিন ডিএসইতে লেনদেন কমলেও সূচক বেড়েছে। অন্যদিকে ট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) লেনদেনের পরিমাণ ৩৩ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

রবিবার লেনদেন শেষে ডিএসইতে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৪.৩৬ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৬৩৩৬ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ০.৭৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩৯৪ পয়েন্টে এবং ডিএস-৩০ সূচক ২.৬৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ২২৮০ পয়েন্টে।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৭৯০ কোটি ৮৩ লাখ টাকা। গত বৃহস্পতিবার লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৮৫৪ কোটি ৫৪ লাখ টাকা।

ডিএসইতে আজ ৩২৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারের লেনদেন হয়। এর মধ্যে ১৭০টির শেয়ারের দর বেড়েছে, কমেছে ১১৩টির। আর দর অপরিবর্তিত আছে ৪৫টির।

এদিন ডিএসইতে লেনদেনে এগিয়ে থাকা ১০টি কোম্পানি হলো – এবি ব্যাংক, শাহজালাল ব্যাংক, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, বিডি থাই, সিটি ব্যাংক, ন্যাশনাল টিউবস, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, ফাস ফাইন্যান্স, ঢাকা ব্যাংক ও গোল্ডেন হার্ভেষ্ট।

এদিকে দিনশেষে দেশের অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) ব্রড ইনডেক্স ১৮.৫৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১১ হাজার ৮৬৩ পয়েন্টে।

দিনভর লেনদেন হওয়া ২৪৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৯টির, কমেছে ৮০টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির।

এ দিন টাকায় লেনদেন হয়েছে ৩৩ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। গত বৃহস্পতিবার ছিল ৯৭ কোটি ১২ লাখ টাকা। এ হিসাবে লেনদেন আগের দিনের চেয়ে অনেকটা কমেছে।

দিনশেষে সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে এবি ব্যাংক ও গোল্ডেন হার্ভেষ্ট লিমিটেড।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএইচ

নারায়নগঞ্জে এজিএম ও ইজিএম করবে রহিমা ফুড

rahimaস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত খাদ্য ও আনুসাঙ্গিক শিল্প খাতের কোম্পানি রহিমা ফুড কর্পোরেশন লিমিটেডের পরিচালনা বোর্ড বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) এবং বার্ষিক সাধারণ সভার (ইজিএম) ভেন্যু ঘোষণা করেছে।

নারায়নগঞ্জ রুপগঞ্জের রূপসী বাস স্ট্যান্ডে অবস্থিত হাবিব কনভেনশন সেন্টার পূর্বনির্ধারিত দিনে এই সভাগুলো অনুষ্ঠিত হবে।

সর্বশেষ বছরে কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের কোনো লভ্যাংশ দেয়নি। এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ইপিএস) হয়েছে ১৮ পয়সা। আর কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২.৮২ টাকা।

আগামী ২৭ ডিসেম্বর কোম্পানিটি বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) দিন নির্ধারণ করেছে। আর রেকর্ড ডেট ৭ ডিসেম্বর ।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএইচ.

ইনফরমেশন সার্ভিসেসের মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই

Informationস্টকমার্কেট ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি আইটি শিল্প খাতের ইনফরমেশন সার্ভিসেস নেটওয়ার্ক লিমিটেডের সাম্প্রতিক সময়ে শেয়ার দর বাড়ার পেছনে কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই বলে জানিয়েছে। শেয়ারটির দর বাড়ার কারণ জানতে চাইলে কোম্পানিটির পক্ষ থেকে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জকে (ডিএসই) এ কথা জানানো হয়েছে। রবিবার ডিএসই’র ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, গত ২৯ অক্টোবর শেয়ার দর ছিল ১৯.৫০ টাকা। গত ২৩ নভেম্বর সর্বশেষ তা ২৩.৮০ টাকায় সর্বশেষ লেনদেন হয়েছে।

কোম্পানিটির শেয়ারের এ দর বাড়াকে অস্বাভাবিক বলে মনে করছে ডিএসই। সম্প্রতি দর বাড়ার পেছনে মূল্য সংবেদনশীল কোন তথ্য কি তা জানতে চায় ডিএসই।

এ সময় ইনফরমেশন সার্ভিসেস লিমিটেড পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি শেয়ারটির দর বৃদ্ধির পেছনে মূল্য সংবেদনশীল অপ্রকাশিত কোন তথ্য তাদের কাছে নেই।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/ এমএইচ