নদী ও ভূমি দখলের মতো ব্যাংক দখল চলছে : কাজী খলীকুজ্জামান

3f39f00b4085cb4ffd511b876d83d6b9-5a1bff90c3babস্টকমার্কেট প্রতিবেদক :

ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমেদ (ফাইল ছবি)নদী দখলের সঙ্গে ব্যাংক দখলকে তুলনা করেছেন পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমেদ। তিনি বলেন, ‘নদী ও ভূমি দখলের মতো দেশে ব্যাংক দখন হচ্ছে। এরপরও এসব দখলদারিত্বের কোনও বিচার হচ্ছে না। এ কারণেই সমাজে অসমতা তৈরি হচ্ছে, বৈষম্য বাড়ছে।’

সোমবার (২৭ নভেম্বর) রাজধানীর মিরপুরে বাংলাদেশ ইনিস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) অডিটোরিয়ামে দুই দিনব্যাপী বার্ষিক ব্যাংকিং সম্মেলন-২০১৭-এর সমাপনী দিনের প্রথম সেশনে প্যানেল আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী। সেশনে সভাপতিত্ব করেন বিআইবিএমের মহাপরিচালক ড. তৌফিক আহমেদ চৌধুরী।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী বলেন, আর্থিক অবকাঠামোতে দৃশ্যমান গতি আনতে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আর্থিক স্থিতিশীলতা ও টেকসই উন্নয়নের দিকে দেশকে এগিয়ে নেওয়া এর মূল উদ্দেশ্য।’

তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যেই আন্তঃব্যাংক লেনদেনে মোবাইল ব্যাংকিং যুক্ত হয়েছে। এর ফলে প্রান্তিক ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী ও ব্যাংকিং সেবার আওতায় আসছে। মোবাইল ব্যাংকিংকে বাংলদেশ ব্যাংক আরও গ্রাহকবান্ধব করতে চায়। এতে অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনীতিতে বড় পরিবর্তন আসবে। এ জন্য স্কুল ব্যাংকিং ছাড়াও আর্থিক খাতের বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।’ বাংলাদেশ ব্যাংককে শতভাগ স্বয়ংক্রিয় করাই এখন প্রধান উদ্দেশ্য বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

দ্বিতীয় দিনের সেশনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর ও বিআইবিএম এর চেয়ার প্রফেসর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ। প্রবন্ধে তিনি উল্লেখ করেন, ‘অবৈধ লেনদেনগুলোর বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গোয়েন্দা ইউনিট কাজ শুরু করেছে। এ ধরনের অবৈধ লেনদেন খুঁজে বের করতে হবে। কারণ অন্তর্ভুক্তিমুলক ব্যাংকিংয়ের বড় বাধা হচ্ছে এসব অবৈধ লেনদেন। মোবাইল ও এজেন্ট ব্যাংকিং অন্তর্ভুক্তিমূলক ব্যাংকিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখলেও এখন তা গভীর উদ্বেগের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। ’

তিনি বলেন, ‘গত বছর মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো মোবাইল ব্যাংকিংয়ের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে অনুমতি চেয়ে আবেদন করে। কিন্তু বিটিআরসি কর্তৃপক্ষের আর্থিক লেনদেনের অনুমোদন না থাকায় এ আবেদনে সাড়া দেয়নি বাংলাদেশ ব্যাংক। কারণ, বাংলাদেশ ব্যাংক ফোন কোম্পানিগুলোর নিয়ন্ত্রক সংস্থা নয়। যে কারণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মোবাইল কোম্পানিগুলোর আবেদন প্রত্যাখ্যান ছাড়া কোনও বিকল্প ছিল না।’ অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনীতির জন্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শক্তভাবে নিয়ন্ত্রণ করা বাংলাদেশ ব্যাংকের অন্যতম দায়িত্ব বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/বি

ডিবিএর নতুন কমিটি গঠন, সভাপতি হলেন সাদেক

dseস্টকমার্কেট প্রতিবেদক :

ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ডিবিএ) নতুন সভাপতি হয়েছেন সংগঠনটির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন সার্ভিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তাক আহমেদ সাদেক।

এছাড়া নতুন সিনয়ির সহ-সভাপতি হয়েছেন এমডি শহিদুল্লাহ সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শরীফ আনোয়ার হোসেন আর সহ-সভাপতি হয়েছেন প্রাইলিংক সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান মো. জহিরুল ইসলাম। রোববার সংগঠনটির বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এদিকে সদ্য বিদায়ী কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছিলেন ডিএসইর সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি রশিদ ইনভেস্টমেন্ট সার্ভিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ রশিদ লালী। আর সিনয়ির সহ-সভাপতি ছিলেন ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন সার্ভিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তাক আহমেদ সাদেক ও সহ-সভাপতি ছিলেন মডার্ন সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খুজিস্তা নূর-ই নাহরীন।

এর আগে গত বছরের ২২ নভেম্বর ২০১৬ এর কাউন্সিলরদের সভায় দুই মেয়াদে দুই সভাপতির বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। এর আগে একই বছরের ২০ নভেম্বর ভোটারা দুই বছরের জন্য ১৫ জন কাউন্সিলর নির্বাচিত করেন।

নতুন কাউন্সিলররা হলেন- প্রাইলিংক সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান মো. জহিরুল ইসলাম, এমডি শহিদুল্লাহ সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শরীফ আনোয়ার হোসেন, গ্লোবাল সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রিচার্ড ডি রোজারিও, মডার্ন সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খুজিস্তা নূর-ই নাহরীন, শ্যামল ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাজেদুল ইসলাম, রাস্তি সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ রেদোয়ানুল ইসলাম।

এছাড়া আরো রয়েছে- থিয়া সিকিউরিটিজের মাহবুবুর রহমান, ডিবিএল সিকিউরিটিজের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী,সাদ সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান মো. দেলোয়ার হোসাইন, ইউনিক্যাপ সিকিউরিটিজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়ালি উল ইসলাম,কান্ট্রি স্টক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খাজা আসিফ আহমেদ, ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন সার্ভিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তাক আহমেদ সাদেক,শাহেদ সিকিউরিটিজের শাহেদ আব্দুল খালেক, রশিদ ইনভেস্টমেন্ট সার্ভিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ রশিদ লালী, ডিএসইর সাবেক সভাপতি ও রয়েল গ্রীন সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান আব্দুল হক।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/বি

দু’টি নয়; তিনটি নতুন ব্যাংকের অনুমোদন দিচ্ছে সরকার : অর্থমন্ত্রী

muhitস্টকমার্কেট ডেস্ক :

দু’টি নয় সরকার তিনটি ব্যাংকের অনুমোদন দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সোমবার (২৭ নভেম্বর) বেলা ৪টায় ঢাকা ক্লাবে বিমা বিষয়ক এক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে অনেক ব্যাংকের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত ব্যাংকিং কার্যক্রমের আওয়তার বাইরে অনেক এলাকা রয়েছে। সেসব এলাকায় ব্যাংকিং কার্যক্রম চালু করতে হবে।

তিনি বলেন, দেশে অনুমোদিত যেসব ব্যাংক ভালো করতে পারছে না সেগুলোর দুটি বা তিনটি মিলিয়ে একীভূত করা হবে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এম/বি

ফারমার্স ব্যাংকের এমডিকে অপসারণের নোটিশ

farmarsস্টকমার্কেট ডেস্ক :

ফারমার্স ব্যাংকফারমার্স ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) একেএম শামীমকে কেন অপসারণ করা হবে না, তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শানো নোটিশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ব্যাংক কোম্পানি আইনের ৪৬ ধারা অনুযায়ী তাকে এ চিঠি দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে গত রবিবার (২৬ নভেম্বর) রাতে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে ফারমার্স ব্যাংকের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

চিঠিতে আগামী সাত দিনের মধ্যে এমডিকে কেন অপসারণ করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে। নোটিশে বলা হয়েছে, ব্যাংকে তারল্য ব্যবস্থাপনা করতে এমডি ব্যর্থ হয়েছেন। এ কারণে নগদ জমা বা সিআরআর ও সংবিধিবদ্ধ জমা বা এসএলআরের অর্থ রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। এছাড়া কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও নতুন করে ঋণ বিতরণ করা হচ্ছে। এসব নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা গনমাধ্যমকে বলেন, ‘চিঠির বিষয়ে পরিষ্কার কিছু বলতে পারব না।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

জানুয়ারিতে অনলাইনে ভ্যাট রিটার্ন শুরু

nbr logoস্টকমার্কেট প্রতিবেদক :

আগামী জানুয়ারি মাস থেকে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলো অনলাইনে মূল্য সংযোজন কর (মূসক) বা ভ্যাট রিটার্ন জমা দিতে পারবে। পরীক্ষামূলকভাবে ছয় মাসের জন্য এ অনলাইন কার্যক্রম চালু হবে। প্রথমে বৃহৎ করদাতা ইউনিটের (এলটিইউ) কোম্পানিগুলো ভ্যাট রিটার্ন দেবে। পরে সেই পরিসর বাড়ানো হবে।

নতুন ভ্যাট আইনের আওতায় নয়; পুরোনো বা বিদ্যমান ভ্যাট আইনের আওতায় এই অনলাইন ব্যবস্থা চালু করা হচ্ছে। তাই ভ্যাটের একাধিক হারও অনলাইন ব্যবস্থায় কার্যকর করা হবে। এ জন্য ভ্যাট অনলাইনের সফটওয়্যারে পরিবর্তন আনা হচ্ছে।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) ভ্যাট অনলাইন প্রকল্পের কার্যালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। অন্যদিকে ৩১ ডিসেম্বর ইলেকট্রনিক ব্যবসায় শনাক্তকরণ নম্বর (ইবিআইএন) নেওয়ার সময় শেষ হচ্ছে। জানুয়ারি থেকে পুরোনো ব্যবসা শনাক্তকরণ নম্বর বা বিআইএন আর চলবে না।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএইচ