গাড়ী বিক্রি বাড়ায় ইফাদ অটোসের মুনাফা বেড়েছে দ্বিগুণ

ifadস্টকমার্কেটবিডি ডেস্ক :

শেয়ারবাজারের তালিকাভুক্ত প্রকৌশল শিল্প খাতের কোম্পানি ইফাদ অটোস লিমিটেডের গাড়ী বিক্রি বেড়েছে। চলতি বছরের প্রথম ৬ মাসে কোম্পানিটি ৭৬ কোটি টাকার বেশি মুনাফা অর্জন করেছে। যা গত বছরের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র থেকে জানা যায়, গত বছরের তুলনায় এ বছর ইফাদ অটোসের গাড়ী বিক্রি বেড়েছে। প্রথম ৬ মাসে কোম্পানটি গাড়ী বিক্রি করে আয় করেছে ৭২৫ কোটি টাকা। গত বছর একই সময়ে কোম্পানিটি ৪৯৫ কোটি টাকার গাড়ী বিক্রি করে।

বিক্রি বাড়ায় ইফাদ অটোস লিমিটেডের মুনাফায়ও হাওয়া গেছে। প্রথম ৬ মাসে কোম্পানটি কর বাদে মুনাফা অর্জন করেছে ৭৬ কোটি ১৭ লাখ টাকা। গত বছর ৬ মাসে এই মুনাফার পরিমাণ ছিল ৪৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা।

চলতি বছরের ২য় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে কোম্পানটি। চলতি বছরের প্রথম ৬ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪.৬৭ টাকা ।

শনিবার অনুষ্ঠিত কোম্পানিটির বোর্ড সভায় ২য় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হয়। তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪.৬৭ টাকা। আর ৬ মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর, ১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৮৯ টাকা।

চলতি বছরের ৩০ ডিসেম্বর কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদের মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৪.৭১ টাকা। যা ৩০ জুন ছিল ৫০.৪২ টাকা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/

ন্যাশনাল পলিমারের ৬ মাসের আয় ১.১১ টাকা

nationalস্টকমার্কেটবিডি ডেস্ক :

শেয়ারবাজারের তালিকাভুক্ত প্রকৌশল শিল্প খাতের কোম্পানি ন্যাশনাল পলিমার লিমিটেড চলতি বছরের ২য় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। চলতি বছরের প্রথম ৬ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১১ টাকা । কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

শনিবার অনুষ্ঠিত কোম্পানিটির বোর্ড সভায় ২য় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হয়। তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২২ পয়সা। আর ৬ মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর, ১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১১ টাকা।

চলতি বছরের ৩০ ডিসেম্বর কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদের মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৫১.৫৩ টাকা। যা ৩০ জুন ছিল ৫০.৪২ টাকা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

দ্যা ইবনে সিনার ৬ মাসে ইপিএস ও ন্যাভ বেড়েছে

ibnস্টকমার্কেটবিডি ডেস্ক :

শেয়ারবাজারের তালিকাভুক্ত রসায়ন ও ঔষধ শিল্প খাতের কোম্পানি দ্যা ইবনে সিনা ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড চলতি বছরের ২য় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। চলতি বছরের প্রথম ৬ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.৫৩ টাকা । কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

শনিবার অনুষ্ঠিত কোম্পানিটির বোর্ড সভায় ২য় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হয়। তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৭৭ টাকা। গত বছরের এ সময়ের কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৩.৫৯ টাকা। এ হিসাবে চলতি বছরে ৩ মাসে কোম্পানির আয় বেড়েছে ।

৬ মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর, ১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.৯৫ টাকা। গত বছরের এ সময়ের কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৫.১১ টাকা।

চলতি বছরের ৩০ ডিসেম্বর কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদের মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৪৪.১২ টাকা। যা ৩০ জুন ছিল ৩৮.৯০ টাকা। এহিসাবে গত ৬ মাসে কোম্পানিটির ন্যাভ বেড়েছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

ইউনাইটেড পাওয়ারের ২য় প্রান্তিকের ইপিএস ৫.৫৩ টাকা

UPGDস্টকমার্কেটবিডি ডেস্ক :

শেয়ারবাজারের তালিকাভুক্ত জ্বালানী ও শক্তি খাতের কোম্পানি ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেড চলতি বছরের ২য় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। চলতি বছরের ২য় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.৫৩ টাকা । কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

শনিবার অনুষ্ঠিত কোম্পানিটির বোর্ড সভায় ২য় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হয়। ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.৫৩ টাকা। গত বছরের এ সময়ের কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৫.২৮ টাকা। এ হিসাবে চলতি বছরে কোম্পানির আয় বেড়েছে ।

৬ মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর, ১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬.০৯ টাকা। গত বছরের এ সময়ের কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৫.৮১ টাকা।

চলতি বছরের ৩০ ডিসেম্বর কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদের মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৪৭.৩১ টাকা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

৫ কোম্পানির অর্ধবার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

financialস্টকমার্কেটবিডি প্রতিবেদক :

চলতি কছরের অর্ধবার্ষিকের (জুলাই-ডিসেম্বর) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ডোরিন পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড সিস্টেমস লিমিটেড, ঢাকা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লি: (ডেসকো), মোজাফ্ফর হোসেন স্পিনিং মিলস, বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিক এবং আজিজ পাইপস লিমিটেড।

সামিট পাওয়ার লিমিটেড: অর্ধবার্ষিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৩৩ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.৯৭ টাকা। গত ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) ইপিএস হয়েছে ১.৩৫ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.৯৭ টাকা।

এছাড়া ছয় মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২৮.৩১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২.৪০ টাকা।

ডোরিন পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড সিস্টেমস লিমিটেড:

অর্ধবার্ষিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪.১৯ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩.৩৩ টাকা। সে হিসেবে ৬ মাসে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ২৬ শতাংশ।

গত ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) ইপিএস হয়েছে ১.৮৩ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১.৬৪ টাকা। সে হিসেবে ৩ মাসে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ১২ শতাংশ।

ছয় মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩৬.৬৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১১.৬৯ টাকা।

ঢাকা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লি: (ডেসকো) :

অর্ধবার্ষিকীতে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৬ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.৩২ টাকা। গত ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) ইপিএস হয়েছে ০.৩৩ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.৭৫ টাকা।

এছাড়া ছয় মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩৯.৬২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.১০ টাকা।

মোজাফ্ফর হোসেন স্পিনিং মিলস:

অর্ধবার্ষিকে (জুলাই,২০১৭-ডিসেম্বর ২০১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৩ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.১৬ টাকা।

গত ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) ইপিএস হয়েছে ০.২৪ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.৭৮ টাকা।

এছাড়া ছয় মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৭.৩৯ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৪৩ টাকা।

বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিক:

অর্ধবার্ষিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৫ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.১১ টাকা। গত ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) ইপিএস হয়েছে ০.৪৩ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.৬০ টাকা।

এছাড়া ছয় মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২৪.৭৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.৩৯ টাকা।

আজিজ পাইপস লিমিটেড:

অর্ধবার্ষিকের (জুলাই,২০১৭-ডিসেম্বর ২০১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩৭ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.৩১ টাকা। গত ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) ইপিএস হয়েছে ০.২৬ টাকা। এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.১৭ টাকা।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

আইপিওতে কোটার মেয়াদ আবারো ৬ মাস বাড়লো

ipoস্টকমার্কেটবিডি প্রতিবেদক :

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য সংরক্ষিত ২০ শতাংশ কোটার মেয়াদ আরো ছয় মাস বাড়ানো হয়েছে। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে অর্থমন্ত্রণালয় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি গত ২৩ জানুয়ারি বিএসইসিকে পাঠানো হয়েছে। এর ফলে সাত দফা মেয়াদ বাড়ানো হলো। গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর ২০ শতাংশ কোটার মেয়াদ শেষ হয়েছিলো।

বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক সাইফুর রহমান গনমাধ্যমে জানান, আইপিওতে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য সংরক্ষিত ২০ শতাংশ কোটার মেয়াদ ২০১৮ সালের ৩১ জুন পর্যন্ত বাড়াতে কমিশনের প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের চিঠিতে বলা হয়েছে, বিনিয়োগকারীদের ২০ শতাংশ কোটার মেয়াদ ৬ মাস বাড়ানো হয়েছে। চলতি বছরের জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। ২০১০ সালের ধসে ক্ষতিগ্রস্ত অনেক বিনিয়োগকারীই এখনো লোকসান কাটিয়ে উঠতে পারেননি। তাই কোটা সুবিধার মেয়াদ আরো ছয় মাস বাড়ানো হলে তারা ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারবেন, এ বিবেচনায় এর মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

ধসের পর সরকার ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ২০১২ সালের ১ জুলাই থেকে আইপিওতে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের জন্য ২০ শতাংশ কোটা বরাদ্দ করে বিএসইসি। পরবর্তীতে ৭ দফায় কোটার মেয়াদ বাড়ানো হয়। আইসিবির প্রাক্কলন অনুসারে, ২০১০ সালের বাজার ধসে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের মোট সংখ্যা ৯ লাখ ১৭ হাজার ৮২৮ জন।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ

ঢাকাতে ইউনাইটেড পাওয়ারের বার্ষিক সভা আজ

UPGDস্টকমার্কেটবিডি প্রতিবেদক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আজ শনিবার অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ইউনাইটেড পাওয়ারের এজিএমটি সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা ক্যান্টনমেন্টে সেনা মালঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে।

সমাপ্ত অর্থবছরে ঘোষিত লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতিক্রমে অনুমোদন হতে পারে উভয় কোম্পানির এজিএমে।

সমাপ্ত অর্থবছরে ইউনাইটেড পাওয়ার শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ৯০ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এমএ