অনিবন্ধিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

 

স্টকমার্কেটবিডি প্রতিবেদক :

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান নিবন্ধন না করলে ব্যবসা থেকে ‘আউট’ হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেছেন, ইউনিক বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন নম্বর সব ব্যবসায়ীকে দেওয়া হবে। আইসিটি বিভাগ এসব করলে তা বাস্তবায়ন করা হবে। যারা নিবন্ধন করবে না, তারা ব্যবসা থেকে আউট হয়ে যাবে। এ নিবন্ধন করতে কোনো খরচ নেই।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ই-কমার্স নিয়ে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আইনগতভাবে দেখার জন্য সেন্ট্রাল লজিস্টিক ট্র্যাকিং প্ল্যাটফর্মের (সিএলটিপি) ব্যবস্থা করতে হবে। সেন্ট্রাল ম্যানেজমেন্ট কমপ্লেইন সিস্টেম, কোথাও কারও অভিযোগ থাকলে, এখানে আসবে। আইসিটি বিভাগ আগামী তিন মাসের মধ্যে এসব করবে। আগামী দু-তিন সপ্তাহের মধ্যে এ বিষয়ে তারা ফলোআপ দেবে। এসক্রো সার্ভিস অটোমেটেড হবে।

ইভ্যালি ছাড়াও কিছু প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে, তাদের নিয়ে ভাবনা কী, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, একটা নির্দেশনা এসেছে, ইভ্যালির ব্যাপারে। এটা একটা গাইডলাইন, এটা দিয়ে আমরা শুরু করতে পারি।

যুবক ও ডেসটিনির গ্রাহকদের টাকা ফেরত পাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যুবক ও ডেসটিনির স্থাবর সম্পত্তি আছে, সে সম্পত্তি তারা নিয়ে যেতে পারেনি। কিছু ক্যাশ তারা নিয়ে গেছে। আইনি প্রক্রিয়ায় ওই সম্পত্তি রিলিজ করা গেলে, সেটার দাম পাওয়া গেলে, আদালত নির্দেশ দিলে দেওয়া যেতে পারে। তবে এসব প্রতিষ্ঠানের অনেক প্রপার্টি বেদখল হয়ে আছে।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিরা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/

হঠাৎ করে বেড়েছে আটা-ময়দা ও চালের দাম

স্টকমার্কেটবিডি প্রতিবেদক :

বাজারে হঠাৎ করে বেড়েছে আটা-ময়দার দাম। পাশাপাশি নতুন করে বেড়েছে চালের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে সরু ও মাঝারি আকারের চালের দাম বেড়েছে কেজিতে ২-৩ টাকা।

এছাড়াও ব্রয়লার মুরগি, চিনি ও ভোজ্যতেল এখনও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। যদিও গত সপ্তাহ খানেক ধরে ধীরে ধীরে কমছে পেঁয়াজের দাম। আজকের বাজারের পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকায়।

বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি বিষয়ে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) বলছে, প্রতি কেজি সরু চাল সপ্তাহের ব্যবধানে ২ দশমিক ৪৮ শতাংশ বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি প্যাকেটজাত আটার দাম বেড়েছে ৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ। প্যাকেটজাত ময়দা বেড়েছে ২ দশমিক ১১ শতাংশ। প্রতি লিটার ভোজ্যতেল বিক্রি হচ্ছে সর্বোচ্চ ৩ দশমিক ৯২ শতাংশ, প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি ২ দশমিক ৭৮ শতাংশ, আলু ১১ দশমিক ১১ শতাংশ বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারের নোয়াখালি রাইস এসেন্সির মালিক ও খুচরা চাল বিক্রেতা মো. আমজাদ মিয়া বলেন, ‘এসময় কিন্তু চালের দাম বাড়ার কথা নয়। কিন্তু মিল মালিকরা চালের দাম বাড়ানোর কারণে পাইকারি ও খুচরা বাজারে এর প্রভাব পড়ে চালের দাম বেড়েছে। এ ক্ষেত্রে প্রতি কেজি সরু চাল আগে সর্বনিম্ন ৫৬ টাকায় বিক্রি হলেও এখন ৫৮-৫৯ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। সপ্তাহ খানেক আগে সর্বোচ্চ ৬৬ টাকার চাল এখন বিক্রি হচ্ছে ৬৮ টাকা। এছাড়া মাঝারি আকারের চাল প্রতি কেজি বিক্রি হয়েছে ৫৭ টাকা, যা এক সপ্তাহ আগেও বিক্রি হয়েছে ৫৫ টাকা করে।

রাজধানীর হাতিরপুল বাজার ও নিউমার্কেটের খুচরা বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সোমবার (২৫ অক্টোবর) প্রতি কেজি প্যাকেটজাত আটা বিক্রি হচ্ছে ৩৮-৪২ টাকা; যা এক সপ্তাহ আগে বিক্রি হয়েছে ৩৫-৪০ টাকা। আর প্রতি কেজি প্যাকেটজাত ময়দা বিক্রি হচ্ছে ৫২ টাকা। যা এক সপ্তাহ আগেও ৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

প্রতিলিটার খোলা সয়াবিন বিক্রি হচ্ছে ১৪৫ টাকা, যা সপ্তাহখানেক আগে ১৪০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। পাঁচ লিটারের বোতলজাত সয়াবিন বিক্রি হচ্ছে ৭৩০ টাকা, যা আগে ৬৯০-৭২০ টাকা ছিল। এক লিটার পাম অয়েল সুপার বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকা, যা আগে ছিল ১৩৫ টাকা।

হাতিরপুল বাজারে কেনাকাটা করতে আসা সাইফুল আলম বলেন, ‘সব ধরনের নিত্যপণ্যের দাম বাড়তি। তেল-চিনি-মুরগী-সবজীর পাশাপাশি নতুন করে চালের দামে বেড়েছে। এমন হলে আমাদের মতো মানুষদের বেঁচে থাকা মুশকিল হয়ে যাবে। বাজার তদারকি করা জরুরি। তা না হলে ক্রেতাদের ভোগান্তি আরও বাড়বে।’

হঠাৎ করে বাজারে বিভিন্ন পণ‌্যের মূল্যবৃদ্ধি সম্পর্কে জানতে চাইলে, বাজার তদারকি সংস্থা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন উপ-পরিচালক বলেন, ‘বাজারে পণ্যের দাম ভোক্তাবান্ধব রাখতে অধিদপ্তরের পক্ষ থকে সার্বিকভাবে বাজার তদারকি করা হচ্ছে। অনিয়ম সামনে এলেই আইনের আওতায় আনা হচ্ছে। তারপরও বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখা যাচ্ছে না। আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে, আশা করি দাম কমে আসবে।’

স্টকমার্কেটবিডি.কম/

 

কেডিএস এক্সেসরিজের লভ্যাংশ ঘোষণা

স্টকমার্কেটবিডি ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি কেডিএস এক্সেসরিজ লিমিটেড শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আজ সোমবার অনুষ্ঠিত ৩০ জুন ২০২১ সালের জন্য এ লভ্যাংশ ঘোষণা করে কোম্পানিটির পরিচালনা বোর্ড।

এ বছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.২০ টাকা। আর শেয়ার প্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ২৪.৭৫ টাকা।

আগামী ৯ ডিসেম্বর কোম্পানিটি বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ডিজিটাল প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২১ নভেম্বর।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এ

দ্যা পেনিনসুলা চিটাগংয়ের লভ্যাংশ ঘোষণা

স্টকমার্কেটবিডি ডেস্ক :

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ভ্রমণ ও প্রণোদনা শিল্প খাতের কোম্পানি দ্যা পেনিনসুলা চিটাগং লিমিটেড শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আজ সোমবার অনুষ্ঠিত ৩০ জুন ২০২১ সালের জন্য এ লভ্যাংশ ঘোষণা করে কোম্পানিটির পরিচালনা বোর্ড।

এ বছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪১ টাকা। আর শেয়ারপ্রতি সম্পদ দাঁড়িয়েছে ৩০.২৮ টাকা।

আগামী ১৩ ডিসেম্বর কোম্পানিটি বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ডিজিটাল প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৫ নভেম্বর।

স্টকমার্কেটবিডি.কম/এ

আবাসিক এলাকায় নতুন গ্যাস সংযোগ কেন নয়

স্টকমার্কেটবিডি প্রতিবেদক :

আবাসিক এলাকায় গ্যাস সংযোগ দেবে না বলে সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে, আবাসিকে গ্যাস সংযোগ না দিয়ে টাকা ফেরত দেওয়ার সিদ্ধান্ত কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না তাও জানতে চেয়েছেন।

সঙ্গে সঙ্গে আবাসিকে গ্যাস সংযোগ দিতে সরকারের নিষ্ক্রিয়তাকে কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না রুলে তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব (জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ), পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান, তিতাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, কর্ণফুলীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাখরাবাদের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আবেদনের শুনানি নিয়ে সোমবার (২৫ অক্টোবর) হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আজ আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. ওয়াজি উল্লাহ। সঙ্গে ছিলেন আজিম উদ্দিন পাটোয়ারী ও আফরোজা সুলতানা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

স্টকমার্কেটবিডি/

শেয়ারবাজারে টানা দরপতন; বিনিয়োগকারীদের বিক্ষোভ

 

স্টকমার্কেটবিডি প্রতিবেদক :

টানা দরপতনে ক্ষুদ্ধ হয়ে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করছে বিনিয়োগকারীরা।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে মতিঝিলে ডিএসই’র কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন তারা।

বাজার বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, আজ সোমবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের বড় পতন হয়েছে। এদিন প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ১২০ পয়েন্ট কমেছে। এখন অবস্থান করছে ৬ হাজার ৮৮৫ পয়েন্টে। গত ১০ কর্মদিবসের মধ্যে ৯ দিনে প্রায় ৫০০ পয়েন্ট সূচক কমেছে।

আজ শরিয়াহ সূচক ২২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৪৬৫ পয়েন্টে। ডিএসই–৩০ সূচক কমেছে ৫৩ পয়েন্ট। অবস্থান করছে ২ হাজার ৬৪৪ পয়েন্টে।

বিক্ষোভকারীরা বলছেন, যতো দ্রুত সময় দরপতন থেকে শেয়ারবাজারকে উত্থানে ফেরাতে হবে। একইসঙ্গে গত ১০ অক্টোবর থেকে চলা এ দরপতনের পেছনে দায়ী ব্যক্তিদের চিহ্নিত করতে তদন্ত কমিটি গঠন করারও দাবি জানান বিনিয়োগকারীরা।

সোমবার দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৭৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে মাত্র ৪৭টির। দর কমেছে ৩০৭টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টির।

ডিএসইতে ১ হাজার ৪৭০ কোটি ৪৩ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিন থেকে ৬১ কোটি ৪৩ লাখ টাকা কম। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৪৭১ কোটি ৪ লাখ টাকার।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২০০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ১৬৯ পয়েন্টে। সিএসইতে ২৯৪টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে।

এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৩৭ টির দর বেড়েছে, কমেছে ২৪৬টির আর ১১ টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে ৬০ কোটি ৬০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

স্টকমার্কেটবিডি/